মঙ্গলবার, ১৯ জুন, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
২২টি গ্রামে বৃহত্তর ইছামতি কালিগঞ্জ প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা’র ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   সোনাপুর-সুপ্রাকান্দি ডেভল্যাপমেন্ট সোসাইটির ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   কাতারে জকিগঞ্জের আব্দুল মুহিম মিনুর মৃত্যু  » «   জকিগঞ্জে ১৩০বোতল অফিসার চয়েজসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   শাহ মোঃ ফয়ছল চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সম্পন্ন  » «   বৃহত্তর আটগ্রাম প্রবাসী সমাজ কল্যাণ পরিষদের ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   প্রতিবন্ধী ও দরিদ্রদের মধ্যে স্পেন প্রবাসী মাসহুদের ইফতার  » «   ইউএনও শহীদুল হকের ইন্তেকালে এইচটিএ সেবা ফাউন্ডেশনের শোক  » «   জকিগঞ্জে এমপি প্রার্থী এম জাকির হোসাইনের সমর্থনে ইফতার  » «   জকিগঞ্জের সাবেক ইউএনও শহীদুল হকের দাফন  » «  

৩ হাজার বছরের পুরনো ফেরাউন মূর্তির সন্ধান

Feraun_220170311150719

মিসরের রাজধানী কায়রোর মাত্তারিয়া জেলার একটি কর্দমাক্ত খাদ থেকে তিন হাজার বছরের প্রাচীন দুটি ফেরাউনি মূর্তির সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা। দুটির মধ্যে একটি মূর্তি ৮ মিটার লম্বা। এটি বেলে পাথরের মতো পাথর দিয়ে তৈরি, যা খোদাই করা। মূর্তিগুলো ধবধবে সাদা রঙের পাথর দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

জার্মান ও মিসরীয় প্রত্নতত্ত্ববিদদের একটি যৌথ মিশন বৃহস্পতিবার মাটি খুঁড়ে মূর্তিদুটি উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, এগুলো ফেরাউনের ১৯তম রাজবংশের সময়কার। ১৯তম রাজা ১৩১৪ থেকে ১২০০ খ্রিস্টপূর্ব কায়রো শাসন করেছে।

গণমাধ্যমে বলা হয়, মিসরের অন্যতম প্রাচীন শহর। ফেরাউনের রাজধানী হেলিওপলিসের একটি এলাকায় এ পুরাতাত্ত্বিক নিদর্শনের সন্ধান পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার সেখানকার ধ্বংসপ্রাপ্ত একটি অ্যাপার্টমেন্টের মধ্যকার পতিতজমিতে মূর্তিদুটি আবিষ্কার করা হয়।

মূর্তিটির খোদাই দেখে এটিকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি যে, এটি কোন রাজবংশের সময়কার। তবে মূর্তিটি রাজা রামসেস ২ এর মন্দিরের প্রবেশপথে পাওয়া গেছে। যে গ্রেট রামসেস নামেও পরিচিত।

মূর্তিটিতে রামসেস ২ সময়কার নিদর্শন পাওয়া গেছে। আরেকটি মূর্তি চুনাপাথরের তৈরি। এটি খ্রিস্টপূর্ব রাজা সেতি ২ এর সময়কার।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.