বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
বৃহত্তর কালিগঞ্জ প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা’র আত্মপ্রকাশ  » «   আদালতে ১৬৪ধারায় সেই ঘাতকের জবানবন্দী  » «   পরীক্ষার হলে শিক্ষিকা ঘুমে জানালেন উপজেলা চেয়ারম্যান  » «   সাংবাদিক আহসান হাবীবের মা অসুস্থ, দোয়া কামনা  » «   লন্ডনে যুব সংহতির সভায় হুইপ সেলিম উদ্দিন এমপি  » «   ওমর মিয়াদ হত্যার অভিযোগে জকিগঞ্জের তোফায়েল আটক  » «   সাইফুল আলম হত্যা; এনামকে একমাত্র আসামী দিয়ে থানায় হত্যা মামলা  » «   ইছামতি কলেজের ছাত্র সাইফুল আলমের হত্যাকারির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি  » «   একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী কিশোর; ঘাতক হত্যাকারি রেহাই পায়নি  » «   পাশের ঘরের চাচাতো ভাই সাইফুল আলমকে হত্যা করে  » «  

সু চির পুরস্কার স্থগিত

মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর সেনা ও পুলিশের দমন-পীড়নে জন্য আন্তর্জাতিকভাবে সমালোচনার মুখোমুখি হওয়ার পর সু চি-কে দেয়া একটি পুরস্কার বাতিল করেছে ব্রিটেনের অন্যতম বৃহৎ ট্রেড ইউনিয়ন- ইউনিসন। গণতন্ত্রের দাবিতে সু চি যখন কারাগারে ছিলেন, তখন এ পুরস্কার দেয়া হয় তাকে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের

ইউনিসন বলছে, তারা সু চিকে দেয়া সম্মাননাসূচক সদস্যপদ স্থগিত করেছে। একই সঙ্গে রোহিঙ্গাদের দুর্দশা লাঘবের জন্য ব্যবস্থা নিতে সু চির প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

ইউনিসনের সভাপতি মার্গারেট ম্যাককি বলেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের অবস্থা খুবই হতাশাজনক। এ অবস্থায় অং সান সু চির ইউনিসনের সম্মানিত সদস্যপদ স্থগিত করা হয়েছে। আমরা আশা করি, আন্তর্জাতিক চাপের প্রতি তিনি সাড়া দেবেন।’

এমন এক সময় এই ঘোষণা এল যখন কিনা বেশকিছু ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠান ঘোষণা দিয়েছে যে, গণতন্ত্রের দাবিতে আন্দোলনের সময় সু চিকে দেয়া পুরস্কার ও সম্মান পুনর্বিবেচনার কথা ভাবছে তারা।

এদিকে, সুচিকে মিয়ানমারের সামরিক জান্তা বিরোধী আন্দোলনের সময় দেয়া সম্মানসূচক ডিগ্রি পুনর্বিবেচনার কথা জানিয়েছে ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়।

বিশ্ববিদ্যালয়টির মুখপাত্র জানান, ব্রিস্টল ইউনিভার্সিটির একজন মুখপাত্র বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ওপর নিষ্ঠুর নির্যাতনের মাধ্যমে ‘জাতিগত শুদ্ধি’র অভিযোগ তুলেছে জাতিসংঘ। এ অবস্থায় মিয়ানমারের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।’

লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকসের স্টুডেন্টস ইউনিয়নও জানিয়েছে যে তারা সু চির সম্মানিত প্রেসিডেন্ট পদ প্রত্যাহার করে নেবে। ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতির পাশা বলেন, ‘রোহিঙ্গা নির্যাতনে অং সান সু চির বর্তমান অবস্থান ও গণহত্যার পরও নিষ্ক্রিয় থাকায় আমরা তার সম্মানিত প্রেসিডেন্ট পদ ফিরিয়ে নেব।’

৩০ বছর ধরে অং সান সু চি যুক্তরাজ্যের গ্লাসগো, বাথ, কেমব্রিজসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডিগ্রি পেয়েছেন।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.