বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
জকিগঞ্জ এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে অসহায় রোহিঙ্গাদেরকে সহায়তা প্রদান  » «   ঢাবি ভর্তি মেধা তালিকায় জকিগঞ্জের ফখরুল  » «   জকিগঞ্জের ইউএনও এবং এ্যাসিল্যান্ডকে সেতুবন্ধনের বিদায় সংবর্ধনা  » «   জকিগঞ্জের ইউএনও এবং এসিল্যান্ড বদলী  » «   শাহগলী আদর্শ শিশু বিদ্যানিকেতনের ২য় সাময়িক পরিক্ষার ফলাফল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন  » «   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরিক্ষার মেধাতালিকায় জকিগঞ্জের ফখরুল  » «   পিল্লাকান্দির আব্দুস ছালাম চৌধুরী অসুস্থ; দোয়া কামনা  » «   আল ইহসান একাডেমীতে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি  » «   জকিগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে সততা স্টোরের উদ্বোধন  » «   লতিফিয়া সাংস্কৃতিক ফোরাম, কালিগঞ্জ’র সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত  » «  

সালমান শাহ নিয়ে ফের লাইভে রুবি: বেঁচে থাকার জন্য নাটক করতে হয়েছে!

সম্প্রতি সালমান শাহ হত্যা মামলার অন্যতম আসামি রুবি সুলতানার একটি ভিডিও প্রকাশের মাধ্যমে ফের সরগরম হয়ে উঠেছে গোটা বাংলাদেশ। ভিডিও থেকে আলোচনা শুরু হলেও এরপর অনেকবার ফেসবুক লাইভে এসেছেন রুবি সুলতানা। আজ দুপুর ২টার দিকে ফেসবুকে লাইভে আসেন তিনি। এসময় তিনি সালমান শাহের মাকে উদ্দেশ্য করে রুবি বলেন, একটু বিশ্বাস করবেন না ভাবি আমার মাথা খারাপ। আমাকে বেঁচে থাকার জন্য এই নাটক করতে হয়েছে। একমাসের ওপরে আমি কাঁদতে কাঁদতে আমি আর পারছি না। আমি মেনেই নিয়েছি আমি মরে গেছি। আজকে আমার শেষ দিন এই রকম মনে হচ্ছে। আমি এখানে বসে আছি চুপচাপ।

লাইভে সালমান শাহের মাকে উদ্দেশ্য করে রুবি আরও বলেন, সামিরা বা আমার স্বামী যদি আপনাদের কোনো কাগজপত্র হাসপাতাল থেকে দেয় তাহলে আপনারা বিশ্বাস করবেন না। তখন বলবেন রুবিরে নিয়ে আসো।

কারণ ওরা যে ভাবে চাল-চালিয়েছে ওদের কথা বিশ্বাস করবেন না। আমার স্বামীর পরিকল্পনা ছিল যে আমাকে ভাগাই দিয়ে কোর্টে মেডিকেলের কাগজপত্র দিবে। আমি সমস্ত মেডিকেলের কাগজপত্র নিয়ে এসেছি, আমি আর হাসপাতালে যাচ্ছি না। আজকে গিয়েছিলাম ওর (স্বামী) সঙ্গে ভালোমতো কথা বলে এসেছি, এবং দেখিয়েছি যে ঠিক আছে আমার স্বামী আমার সঙ্গে আছে।

তিনি বলেন, আমি আমার কনসান দিয়েছি যে কেইসের বেলায় যেতে পারবে। ও যদি কোনও কাগজপত্র দেয় এমনকি সামিরার পক্ষ থেকে যদি কাগজপত্র দেয় তাহলে বিশ্বাস করবেন না ভাবি (নীলা চৌধুরী)। আপনি বলবেন রুবিরে চাই, রুবিরে চাই। আগে বিশ্বাস করেছি এটা আত্মহত্যা, কিন্তু এখন মনে হয় এটা খুনীই। এসময় তিনি বারবার বলেন কোনও কাগজপত্র দিলে বিশ্বাস না করার কথা বলেন।

নীলা চৌধুরীকে উদ্দেশ্য করে রুবি বলেন, আমারে নিয়ে যান ভাবি, আমি রাজসাক্ষী হবো। আর আমার মাথা খারাপ কিনা আপনাদের পরিচিত ঢাকার কোনো ডাক্তার দিয়ে সেটা ইভোলিয়েশন করতে পারেন। আপনি একটু বিশ্বাস করবেন না আমার মাথা খারাপ। আমার মাথা একটুও খারাপ না। আমাকে বেঁচে থাকার জন্য এই নাটক করতে হয়েছে। একমাসের ওপরে আমি কাঁদতে কাঁদতে আমি আর পারছি না। আমি মেনেই নিয়েছি আমি মরে গেছি। আজকে আমার শেষ দিন এই রকম মনে হচ্ছে। আমি এখানে বসে আছি চুপচাপ।

আবারও নীলা চৌধুরীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, মানবেন না ভাবি একটুও মানবেন না-যে আমার মাথা খারাপ। আমার মাথা খারাপ না ভাবি। আমার মাথা সুস্থ আছে। আমি ট্যাপে পড়ে আছি এখানে। আমার পাসপোর্ট নেই, সিটিজেনশীপের কাগজ নেই, আমার কিছুই নেই, পুলিশের কাছেও যেতে পারি না। কালকে বাসায় পুলিশ এসেছিল, আমার স্বামীর সামনে আমাকে বলতে হয়েছে যে আমার মাথা খারাপ। আমার কিন্তু মাথা খারাপ না, একটু মাথা খারাপ না। আমি মনে হয় মরেই যাবে।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.