বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
জোবেদ আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা শীর্ষক আলোচনা  » «   বিদ্যুৎ বিভ্রাটে আমার নিয়ন্ত্রণ নেই, জকিগঞ্জ বার্তাকে ডিজিএম  » «   জকিগঞ্জ-চারখাই সড়কের মাঝে গর্ত, যান চলাচলে বিঘ্ন  » «   ফেসবুকে মানহানীকর মন্তব্য; সাংবাদিক এখলাছুর রহমানের থানায় জিডি  » «   সেই হামলায় জড়িত ফুলতলী এতিমখানার ৩শিক্ষক ও ১৭ছাত্রকে বহিষ্কার  » «   জকিগঞ্জের সেই মানসিক ভারসাম্যহীন পরিবারকে সহায়তা  » «   জকিগঞ্জে প্রায় ৭০লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত দু’টি ব্রীজের উদ্বোধন  » «   জকিগঞ্জ পাবলিক লাইব্রেরীর গেইট ও দেয়াল উদ্বোধন  » «   গণিপুর কামালগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা  » «   দীর্ঘদিন পর জকিগঞ্জে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল  » «  

সমস্যা-সম্ভাবনা নিয়ে জকিগঞ্জ বার্তাকে যা বললেন মাওলানা শুয়াইবুর রহমান বালাউটি

16558605_1875707355999067_1496085729_n

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রখ্যাত আলেম, জালালপুর ফাজিল সিনি: মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ হযরত মাওলানা শুয়াইবুর রহমান বালাউটি ছাহেবের সাথে তাঁর বাড়িতে আজ রাতে জকিগঞ্জের সমস্যা-সম্ভাবনা নিয়ে জকিগঞ্জ বার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক এনামুল হক মুন্নার সাথে  প্রায় দেড় ঘন্টা আলোচনা হয়। আলোচনায় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন।
তিনি বলেছেন, জকিগঞ্জ সরকারি কলেজে ডিগ্রীসহ অনার্স কোর্স চালু হতে হবে। এ কোর্স চালুর প্রয়োজনীয়তা নিয়ে অনেক আলোচনা করে বলেন জেলা সদর থেকে দূরবর্তী উপজেলায় এটি বাস্তবায়ন করা সময়ের দাবি। যারা কোর্স চালুর জন্য শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছেন, তাদের প্র্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।
বলেন, মানুষের ভোগান্তির কথা বিবেচনা করে দ্রুত সড়কটির কাজ শুরু করা উচিত। সরকারি হাসপাতালে এ্যাম্বুলেন্স থাকার পরও চালক না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।
হাওর উন্নয়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করলে জকিগঞ্জ অনেক দূর এগিয়ে যেতো। হা্ওর গুলো নিয়ে কাজ করলে মানুষের অভাব দূর হওয়ার পাশাপাশি ব্যাপক কর্মসংস্থান হতো। এ ক্ষেত্রে বড় বড় শিল্পোদ্যোক্তা ও ধণাঢ্যদের চিন্তা-ভাবনার পরামর্শ দেন।
আগের এবং বর্তমান মাদ্রাসা শিক্ষার নানা দিক নিয়ে আলোচনা করে বলেছেন, ১৯৬২সালে বাদেদেওরাইল ফুলতলী মাদ্রাসার হেড পোষ্টে তিনি শিক্ষা জীবন শুরু করেন। সেখানে প্রায় ১৪বছর ছিলেন। এর পর আটগ্রাম আমজদিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ৭বছর ছিলেন। পরবর্তীতে দীর্ঘ ২৭বছর জালালপুর ফাজিল সিনিয়র মাদ্রাসায় অধ্যক্ষের দায়িত্বে ছিলেন। তৎকালিন সরকার থেকে মাদ্র্রাসায় মাসে মাত্র ২০টাকা অনুদান আসতো। দূর দূরান্ত থেকে মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে টাকা এনে মাদ্রাসার শিক্ষার কল্যাণে কাজ করেছেন। কষ্ট আর সীমাহীন ত্যাগের কথা স্মৃতিচারণ করে বলেন, প্রায় বেলা উপোষ থেকেছি। দ্বীনের জন্য, মাদ্রাসার জন্য অনাহারে-অর্ধাহারে দিনাতিপাত করতে হয়েছে। অনেক সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আজ মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নতি হয়েছে। এখন আর আগের মতো তেমন কষ্ট, ত্যাগের প্রয়োজন পড়ে না।
অতীত এবং বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থার বিরাট ফারাক উল্লেখ করে বলেন আগের আলেমরা যোগ্যতা, দক্ষতায় ও জ্ঞানের দিক দিয়ে খুব পারদর্শী ছিলেন। আগের অল্প শিক্ষিতরা অনেক দক্ষ ছিলেন। কিন্তু এখন শিক্ষার নয় সার্টিফিকেটের গুরুত্ব বেড়েছে।
তবে এসব বিষয়ে সাংবাদিকদের গুরুত্ব অপরিসীম। সাংবাদিকদের সেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে। সাংবাদিকদের লেখার মাধ্যমে মানুষ জেগে উঠবে। সমস্যারও সমাধান হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। জকিগঞ্জ বার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকমকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, এ পত্রিকাকে (পোর্টাল) সত্য, বস্তুনিষ্ট ও সাহসীকতায় সেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করা প্রয়োজন।
আলাপচারিতার মাঝে হু্ইপ সেলিম উদ্দিন এমপির ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, তিনি যেনো জকিগঞ্জের উপরোক্ত সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসেন।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.