শুক্রবার, ২৩ জুন, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল : আড়াই হাজার কোটি টাকার বাজি!

ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল নিশ্চিত হওয়ার পর থেকেই যেন জেগে উঠেছে পুরো জুয়ার দুনিয়া। সারা বিশ্বেই এখন চলছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দলের নামের জুয়ার রমরমা বাণিজ্য। ঠিক কত টাকার জুয়ার কারবার চলছে, সেটা নিশ্চিত করে বলার উপায় নেই মোটেও। এই একটি ম্যাচকে ঘিরে জ্ঞাত-অজ্ঞাত জুয়ার কারবারে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে পুরো ক্রিকেট দুনিয়া।

ভারতের জুয়া বৈধ না হলেও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক, ইংল্যান্ডে জুয়া বৈধ এবং এ নিয়ে সরকারি নীতিমালাও রয়েছে। প্রযুক্তির সহায়তায় চলে জুয়ার কারবার। ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল ঘিরে বৈধ জুয়ার যে হিসাবে পাওয়া যাচ্ছে, তাতে চোখ কপালে উঠে যাওয়ার মতো জোগাড়। প্রায় ২০০০ কোটি রুপির (প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা) জুয়ার কারবার চলছে। অল ইন্ডিয়ান গেমিং ফেডারেশন এই হিসাব প্রকাশ করেছে।

জুয়াড়িদের কাছে ভারত সবচেয়ে ফেবারিট। ৪ জুন ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যকার গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয়েছিল পাকিস্তান। এ কারণে ফাইনালেও ভারত ফেবারিট। তবে সবাই যে ভারতের পক্ষে বাজি ধরছেন তা নয়। গেমিং সাইটগুলোতে কেউ যদি ভারতের পক্ষে ১০০ রুপি বাজি ধরেন এবং ভারত জেতে তাহলে তিনি পাবেন ১৪৭ রুপি। বেটফেয়ার নামে একটি সাইট জানাচ্ছে, পাকিস্তানের পক্ষে ১০০ রুপি বাজি ধরলে যদি তারা জেতে তাহলে বাজিকর পাবেন ৩০০ রুপি।

২০০০ কোটি রুপির যে হিসাব এখানে দেয়া হয়েছে তা শুধুমাত্র একটি অংশের বাজি নিয়েই করা হয়েছে। অর্থাৎ ফাইনালে কে জিতবে কে হারবে- এটা নিয়েই যে বাজির খেলা চলছে তার হিসাব দেয়া হয়েছে। তবে বাজিকররা চাইলে বাজির সাইটগুলোতে অন্য অংশগুলো নিয়েও বাজি ধরতে পারেন। অর্থাৎ ১০ ওভারে কত রান হবে কিংবা ৫০ ওভারে কত রান হতে পারে- এসব বিষয় নিয়েও চলছে বাজির খেলা।

ভারতে বাজি দু-একটি জায়গায় বৈধ হলেও পুরো দেশের অধিকাংশ এলাকাতেই নিষিদ্ধ। এ কারণে ভারতীয়রা বাজির খেলায় মেতে উঠছে ইংল্যান্ডভিত্তিক জুয়ার সাইটগুলোতে, তাদের ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.