মঙ্গলবার, ২২ মে, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
জাতীয় পার্টির যুক্তরাজ্য শাখার সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন হেলালের দেশে প্রত্যাবর্তন  » «   বারহাল ছাত্র পরিষদের আজীবন সদস্য, লন্ডন প্রবাসী আজিজ আহমদকে সংবর্ধনা  » «   সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ন ছাত্র-ছাত্রীদের সংবর্ধনা প্রদান  » «   জকিগঞ্জ-সিলেট সড়ক দ্রুত সংস্কার করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিলেন সেলিম উদ্দিন এমপি  » «   বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত জকিগঞ্জ হাসপাতাল  » «   বারহাল ছাত্র পরিষদের আজীবন সদস্য জনাব আজিজ আহমদ কে সংবর্ধনা প্রদান সম্পন্ন  » «   আল্লামা মকদ্দছ আলীর সহধর্মীনির দাফন সম্পন্ন  » «   মাসুক উদ্দিন আহমদ বারহাল এহিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত  » «   শাহ মোঃ ফয়ছল চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্ট এর বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ  » «   জকিগঞ্জে ছাত্র মজলিসের কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত  » «  

ভারতের গরীব মুখ্যমন্ত্রীর তালিকায় প্রথম মানিক সরকার, দ্বিতীয় মমতা

ভারতের মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে গরীব মুখ্যমন্ত্রী হলেন ত্রিপুরার মাণিক সরকার। তার সম্পত্তির পরিমাণ মাত্র ২৬ লক্ষ রুপি। আর এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার সম্পত্তির পরিমাণ ৩০ লক্ষ রুপি। কোনো স্থাবর সম্পত্তি নেই তার। আর তৃতীয় গরীব মুখ্যমন্ত্রী হলেন জম্মু ও কাশ্মীরের মেহবুবা মুফতি।
তার সম্পত্তির পরিমাণ ৫৫ লক্ষ রুপি। দেশটির ২৯টি রাজ্য ও ২টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের বাকী ২৮ জন মুখ্যমন্ত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ কোটি রুপির উপর। এদের মধ্যে আবার ২৫ জনের সম্পত্তির পরিমাণ ১৬ কোটি রুপির উপরে। তবে ভারতের সবচেয়ে ধনী মুখ্যমন্ত্রী হলেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। তার সম্পত্তির পরিমাণ ১৭৭ কোটি রুপি। চন্দ্রবাবুর সঙ্গে এই এক্সক্লিউসিভ শ্রেণিতে রয়েছেন অরুণাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু। তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১২৯ কোটি। এই দুই মুখ্যমন্ত্রীর ঠিক পিছনেই রয়েছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহ। তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৪৮ কোটি। মুখ্যমন্ত্রীদের নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা হলফনামার ভিত্তিতে সমীক্ষা চালিয়ে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন অফ ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস বা এডিআর এই তথ্য প্রকাশ করেছে। এদের সমীক্ষায় আরও জানা গেছে, অপরাধের দিক থেকে দেশটির ৩১ জন মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে ২০ জনের রেকর্ড একেবারে ক্লিন। ১১ জনের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা চলছে। ৮ জনের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ অপরাধমূলক মামলা রয়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি মামলা রয়েছে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডনবীশের বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে মোট ২২টি মামলা রয়েছে। এরপরেই রয়েছেন কেরলের পিনারাই বিজয়ন (১১টি) এবং দিল্লির অরবিন্দ কেজরিওয়াল (১০)। এডিআর-এর তথ্য অনুযায়ী, শিক্ষার দিক থেকে প্রত্যেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীই শিক্ষিত। ৩৯ শতাংশ গ্র্যাজুয়েট, ৩২ শতাংশ প্রফেশনাল, ১৬ শতাংশ পোস্ট গ্র্যাজুয়েট। শুধুমাত্র ১০ শতাংশ মুখ্যমন্ত্রী রয়েছেন যারা হাইস্কুল পাস করেছেন। তবে সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পি.কে. চামলিং ডক্টরেট ডিগ্রিধারী।

[এফএম]

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.