সোমবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
হাড়িকান্দি মাদ্রাসায় গোটারগ্রাম প্রবাসী সংস্থার ১লক্ষ টাকা অনুদান  » «   বৃদ্ধ চাচাকে নির্যাতনকারি ছুবহান সহ ৪জন কারাগারে, জকিগঞ্জ বার্তাকে অ্যাডিশনাল এসপি  » «   সিলেটে শ্রেষ্ঠ হলেন জকিগঞ্জ সার্কেল এর অ্যাডিশনাল এসপি  » «   শতবর্ষী চাচাকে নির্যাতনকারি সেই ভাতিজা আটক  » «   সেই শিশুর পাশে জকিগঞ্জ প্রবাসী সমাজকল্যাণ সংস্থা  » «   অমানবিক…..  » «   অসহায় মজলুম মানুষের খিদমতে নিজেকে উৎসর্গ করুন: আল্লামা ইমাদ উদ্দিন ফুলতলী  » «   ফুলতলী ছাহেব বাড়ি অভিমুখে মানুষের ঢল  » «   আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলা রহ. এর ঈসালে সাওয়াব মাহফিল চলছে  » «   টাকার অভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না জকিগঞ্জের কাজলসার শিশু সাইদুলের  » «  

ভারতকে হারিয়ে এশিয়ার ক্রিকেট হিরো বাংলাদেশের মেয়েরা

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট, বাংলাদেশ, Women Asia Cup Cricket, Bangladesh Women Cricket, Indian Women Cricket, Cricket, Rtvonline

 

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে হারিয়ে নারীদের এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। ছয়বারের এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন দলটিকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা ঘরে তুললো বাংলাদেশ। নারী ক্রিকেটের ইতিহাসে এই প্রথম কোন টুর্নামেন্টের শিরোপা ঘরে তুললো বাংলাদেশ দল।  আজ রোববার কুয়ালালামপুরের কিনরারা একাডেমি ওভাল মাঠে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায় শুরু হয়। সরাসরি সম্প্রচার করছে স্টার স্পোর্টস-১, গাজী টিভি। যদিও এবারে নারীদের এশিয়া কাপের আগের ম্যাচগুলো কোনো টিভি চ্যানেল সম্প্রচার করেনি।

ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ১২ রানে মহানন্দাকে রান আউটের ফাঁদে ফেলে উল্লাসের শুরু। এরপর ২৬ রানে দীপ্তি শর্মা, ২৮ রানে মিতালি রাজ, ৩২ রানে আনুজা পাতিল ফিরে গেলে বিপর্যয়ে পড়ে ভারত। সেখান থেকে অন্যপ্রান্তে উইকেট আগলে রেখে রানের চাকা সচল রাখেন হারমনপ্রীত। শেষ পর্যন্ত ৪২ বলে ৫৬ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলে ইনিংসের শেষ বলে ফেরত যান হারমনপ্রীত। ৫৬ রানের ইনিংসে ৭টি দর্শনীয় চার মারেন এই ব্যাটার।  বাংলাদেশের পক্ষে রোমানা ও খাদিজা ২টি এবং সালমা ও জাহানারা ১টি করে উইকেট লাভ করেন।  ১১৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দারুন সূচনা করে বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটি। ৭ ওভারেই দলীয় স্কোর ৩৫ রান তুলে নেন শামীমা সুলতানা ও আয়েশা রহমান। এরপরই ছন্দপতন ঘটে বাংলাদেশের ইনিংসে। পরপর দুই বলে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। এরপর উইকেটে এসে ফারহানা হক নিগার সুলতানকে সঙ্গে নিয়ে ২০ রানের জুটি গড়েন। এরপরই আবার উইকেটের পতন। এবার ফিরে যান ফারহানা হক। দলীয় ৮৩ রানে ফিরে যান নিগার সুলতানা।  এরপর ফাহিমা খাতুনের সঙ্গে রুমানা আহমেদ এসে উইকেটে জুটি গড়েন। কিন্তু বেশি দূর এ জুটি এগুতে পারেনি। দলীয় ৯৬ রানে ফাহিমা আউট হলে বাংলাদশের জয় পাওয়াটা অনেক দূরেই মনে হচ্ছিল। কিন্তু অন্যপাশে অভিজ্ঞ রুমানা বাংলাদেশকে জয়ের স্বপ্ন দেখাতে থাকেন। ঝুলন গোস্বামীর এক ওভারে তিনটি চার মেরে খেলাকে বাংলাদেশের হাতে নিয়ে আসেন রুমানা। মূলত ওই ওভারেই ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। ঝুলন ওই ওভারে ১৭ রান দেন।  শেষ পর্যন্ত রুমানা জয় থেকে ২ রান দূরে থাকতে আউট হন। শেষ বলে জাহানারা আলম দুই রান নিলে শিরোপা জয়ের উল্লাসে মাতে বাংলাদেশ। ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ ২৩ রান ও ২ উইকেট তুলে নেয়ায় প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পান রুমানা আহমেদ। আর টুর্নামেন্ট জুড়ে অসাধারণ পারফরম্যান্সের কল্যাণে প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্টের পুরস্কান পান ভারতের অধিনায়ক হারমনপ্রীত কাউর।  ভারতের পক্ষে পুনম ইয়াদব ৪টি ও অধিনায়ক হারমনপ্রীত কাউর ২টি উইকেট লাভ করেন।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

Developed by:

.