মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
সড়ক সংস্কার বিষয়ে যা বললেন ইউএনও-সিএন্ডবি কর্মকর্তারা  » «   জকিগঞ্জ-বটরতল সড়ক সংস্কার কাজ শুরু না হওয়ায় তীব্র ক্ষোভ  » «   বারঠাকুরী ও কসকনকপুর ইউপি ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক প্রাথীদের জীবন বৃত্তান্ত আহ্বান  » «   উত্তরকুল মোশাহিদীয়া দাখিল মাদ্রাসা তালামীযের কমিটি গঠন  » «   তালামীযের জকিগঞ্জ পৌরসভা শাখার কমিটি গঠন  » «   গঙ্গাজল (ক) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড ডে মিল চালু  » «   বারঠাকুরী ইউপি সদস্য সুনাম আহমদের দাফন; এলাকায় শােকের ছায়া  » «   ফেসবুক জুড়ে ইকবাল তালুকদারের মৃত্যুর স্ট্যাটাস  » «   ইকবাল তালুকদারের ইন্তেকাল; জকিগঞ্জে শােকের ছায়া  » «   ঢাকায় মি’রাজুন্নবী সা. উপলক্ষ্যে আলোচনা ও মিলাদ মাহফিল  » «  

বৃষ্টি উপেক্ষা করে হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে জকিগঞ্জে মরণোত্তরসহ ১১ গুণী সংবর্ধিত

17264469_1294220017291650_3112426064305832922_n

নিজস্ব প্রতিবেদক: জকিগঞ্জ গুণীজন সংবর্ধনা পরিষদ গত বছরের মতো শনিবার জকিগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে জকিগঞ্জের ১১জন গুনীজনকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। মরণোত্তর সম্মাননা প্রদান করা হয় ব্রতচারী আন্দোলনের প্রবর্তক গুরুসদয় দত্ত, ভাষা সৈনিক মতিন উদ্দিন আহমদ, ব্রিগেডিয়ার অব. মাহমুদুর রহমান মজুমদার, খতিব আল্লামা উবায়দুল হক, প্রিন্সিপাল এম.এ মান্নান। এছাড়াও ধর্মের প্রচার ও প্রসারে শায়খুল হাদিস আল্লামা হবিবুর রহমান, শায়খুল হাদীস আল্লামা মুক্বদ্দছ আলী, সমাজ সেবায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আফতাব হোসেন চৌধুরী কয়েছ, বাংলা সাহিত্যে কবি কালাম আজাদ, মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, মানব সম্পদ উন্নয়নে ড. আহমদ আল কবিরকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর এম.এ মতিন।  মাওলানা আব্দুস সবুর ও আখতার হোসেন রাজুর উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন সংবর্ধিত অতিথি শায়খুল হাদিস আল্লামা হবিবুর
রহমান, শায়খুল হাদস আল্লামা মুক্বদ্দছ আলী, অধ্যক্ষ কবি কালাম আজাদ, মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, কলকাতার বিশ্বভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর নরেশ ব্যানার্জি, শাবির ডিন ড. কামাল আহমদ চৌধুরী, শাবির সাবেক রেজিস্ট্রার জামিল আহমদ চৌধুরী, মেজর নাজিম উদ্দিন মজুমদার, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শাব্বির আহমদ, জকিগঞ্জ ফাজিল সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও. নুরুল ইসলাম, সিলেট প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি হারুনুজ্জামান চৌধুরী, দৈনিক সিলেটের ডাকের নির্বাহী সম্পাদক আবদুল হামিদ মানিক, মতিন উদ্দীন যাদুঘরের পরিচালক ডা. মোস্তফা শাহজামান চৌধুরী বাহার,
জকিগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি আবুল খায়ের চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সাবেক কলামিষ্ট এম.এ মালেক চৌধুরী, আমেরিকা প্রবাসী সংগঠক আবিদুর রহমান লস্কর, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি কুতুব উদ্দিন, অধ্যাপক কবি বাছিত
ইবনে হাবিব খান, মাদারিসে আরাবিয়ার সভাপতি  মাও. মাসুক আহমদ, মুফতি আবুল হাসান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাও. মখলিছুর রহমান প্রমূখ। উল্লেখ্য,গত বছর জকিগঞ্জের ৮ গুণীকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছিল। অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত ও সম্মাননা প্রাপ্তদের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি পাঠ করে শুনানো হয়। এ উপলক্ষে ‘আলোর সৌরভ’ নামে গুণীজন সংবর্ধনা স্মারক প্রকাশিত হয়। শেখ শাদীর ঐতিহাসিক উক্তি ’’যে সমাজে গুণীর কদর নেই সেখানে গুণী জন্মায় না’’। এমন মন্তব্য করে বক্তারা বলেন, যাদেরকে সম্মাননা ও সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে তারা সব সময়ই আপন মহিমায় ভাস্বর। আজ ঐতিহাসিক জকিগঞ্জ সরকারি বালক
উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ক্ষণজন্মা গুণীজনদের সংবর্ধনার মাধ্যমে আয়োজকরা আমাদের কিছুটা দায়মুক্ত করলেন। সভায় সংবর্ধিত অতিথি শায়খুল হাদীস আল্লামা মুক¦দ্দছ আলী পরম করুণাময়ের অশেষ শুকরিয়া আদায় করে বলেন, এ আয়োজনের মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম গুণীজন সম্পর্কে ধারণা পাবে। শায়খুল হাদীস আল্লামা অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান বলেন, সম্মান না করলে সম্মান
পাওয়া যায় না। জোর করে সম্মানিত হওয়া যায় না। সম্মানিত হতে হলে সে যোগ্যতা অর্জন করতে হয়। গুণীরা সম্মান পাওয়ার জন্য কাজ করেন না। তারা নি:স্বার্থ ও নিবেদিত। বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, মহান মুক্তিযুদ্ধে ২১ নভেম্বর
জকিগঞ্জ প্রথম মুক্তাঞ্চলের স্মৃতিচারণ করে বলেন, আপনাদের এ সওগাত আমি মাথা পেতে নিলাম। আসলে এ সম্মানের যোগ্য আমি নই। স্বাধীনতার এ মাসে প্রাপ্য সম্মান আমি মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি উৎসর্গ করলাম। ঐতিহাসিক জকিগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের এ মাঠে ২১নভেম্বর মুক্তিযুদ্ধে বেসামরিক প্রশাসনীক কেন্দ্র স্থাপিত হয়। অতিথি প্রফেসর নরেশ ব্যানার্জী বলেন, জকিগঞ্জের মানুষের গুণীজনের প্রতি ভক্তি দেখে আমি মুগ্ধ অভিভূত। শাবির ডিন ড.কামাল আহমদ চৌধুরী বলেন, সৃষ্টির ¯্রষ্টারা নিজ নিজ সৃষ্টিতেই প্রতিনিয়ত সংবর্ধিত। লেখক গবেষক আবদুল হামিদ মানিক বলেন, এ মাটিতে অনেক গুণীর জন্ম হয়েছে।
যারা আমাদের পথ প্রদর্শক। তাদের জীবন ও কর্ম নতুন প্রজন্মের কাছে আমাদের স্বার্থেই তুলে ধরা উচিত। সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর এম এ মতিন বলেন, জকিগঞ্জের সন্তান জগৎখ্যাত হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপনা করছেন ড. আহমদ আনিছুর রহমান। এ কথা মনে হতে গর্ভে আমাদের বুক ভরে যায়। অনুষ্ঠানে বৃষ্টি উপেক্ষা করে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ,
উপজেলা আ্ওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাকীম হায়দর, অধ্যক্ষ জালাল আহমদ, অধ্যক্ষ আজির উদ্দিন, অধ্যক্ষ মো: মহিউদ্দিন, জকিগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রাণ কৃষ্ণ দেবনাথ,
জকিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি বদরুল হক খসরু, সেক্রেটারি শ্রীকান্ত পাল, কোষাধ্যক্ষ এনামুল হক মুন্না, প্রচার সম্পাদক কে এম মামুন, নির্বাহী সদস্য আল মামুন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ, সংগঠক হাফেজ মনজুরে
মাওলা, মাওলানা ফদ্বলুর রহমান, আলাউদ্দিন তাপাদার, মুহাম্মদুল্লাহ বুলবুল, ম্ওালানা রফিকুল ইসলাম, সিলেটস্থ জকিগঞ্জ একতা ফোরামের সভাপতি আব্দুল মুকিত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহিদুর রহমান তাপাদার, সংগঠক আব্দুস ছালাম, কবি সিদ্দিক আহমদ, কবি হাসান স্বজনসহ জকিগঞ্জের
জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, ছাত্র শিক্ষকসহ বিপুল সংখ্যক দর্শক শ্রোতা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.