সোমবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
২৩ দিনেও খোঁজ মেলেনি জকিগঞ্জের স্কুলছাত্র রুবেলের  » «   জকিগঞ্জে বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুন; ৬শতাধিক ব্রয়লার মোরগ পুড়ে ছাই  » «   মোস্তাক সরকারকে জকিগঞ্জ অফিসার্স ক্লাবের বিদায় সংবর্ধনা  » «   কাস্টমঘাটে প্রতিমা বিসর্জন উপলক্ষ্যে হাজারো মানুষের ভিড়  » «   নবাগত জকিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে বরণ  » «   জকিগঞ্জের পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে মাসুক উদ্দিন আহমদ  » «   জকিগঞ্জে পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে অ্যাড. মোশতাক সহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ  » «   কানাইঘাটে দুর্গাপূজার মন্ডপ পরিদর্শনে ড. আহমদ আল কবির  » «   চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’র উদ্বোধন  » «   শাবির এ ইউনিটের মেধা তালিকায় জকিগঞ্জের জসিম লস্কর  » «  

বিরশ্রী ইউপিতে মুক্তিযোদ্ধাদের হোল্ডিং টেক্স প্রত্যাহার ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: জকিগঞ্জের বিরশ্রী ইউপিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদানের মাধ্যমে তাদের হোল্ডিং টেক্স প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। গতকাল দুপুরে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম চৌধুরী পানু। ইউপি সদস্য শেখ বুরহান উদ্দিনের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন ইউপি আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ইউপি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শওকত আলী, জকিগঞ্জ বার্তা সম্পাদক ও প্রেসক্লাব কোষাধ্যক্ষ এনামুল হক মুন্না, সাবেক ইউপি সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসলাম উদ্দিন।

বক্তব্য দেন ও উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা নিয়াজ আলী, আলাউদ্দিন, স্বপন আচার্য্য, ফুরমত আলী, খলিলুর রহমান, মোস্তকীম আলী, ইউপি সদস্য এরশাদ আলী, আব্দুল কাইয়ুম, মুহিবুর রহমান, কাজী জিয়া উদ্দিন, ছায়াদ আহমদ, মকরম আলী, শিখা রানী, শিল্পি রানী, সচিব ফখরুল ইসলাম, উপজেলা সন্তান কমান্ডের হরিপদ সরকার, শেখর আচার্য্য, সাব উদ্দিন, আব্দুল মালিক, বিলাল আহমদ, সোহেল আহমদ, রাহেল আহমদ প্রমূখ। সভাপতির বক্তব্যে আব্দুস ছালাম চৌধুরী বলেন, উপজেলার মধ্যে সব চেয়ে বেশি মুক্তিযোদ্ধার বসবাস বিরশ্রী ইউপিতে। আমি ১০২টি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের হোল্ডিং টেক্স প্রত্যাহার করা হলাে। ২০১৮সাল থেকে এ বিধান কার্যকর করা হচ্ছে। মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ট সন্তান উল্লেখ করে বলেন শীঘ্রই একটি অফিস মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বরাদ্ধ দেওয়া হবে। তাছাড়া যতধরনের সহযোগিতা করা দরকার, তার সবই করা হবে। ভবিষ্যতে আরো বড় পরিসরে সংবর্ধনা প্রদান করার ঘোষণা দেন তিনি। মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, শহীদ মুক্তিযোদ্ধারা ভাই হিসেবে আমাদের ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম চৌধুরী যে সম্মান দেখিয়েছেন, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। এই প্রথম স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৬বছর পর এ ইউপি পরিষদ তথা চেয়ারম্যান আমাদের প্রতি সম্মান দেখালেন। এ অবদান তারা কখনও ভূলবেন না বলে জানান বক্তারা।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

Developed by:

.