মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বিপিএল উন্মাদনায় মাততে প্রস্তুত সিলেট

আশিক উদ্দিন: সিলেটের মাটিতে প্রথমবারের মতো পর্দা উঠবে দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের জমজমাট আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেট (বিপিএল)। শনিবার থেকে শুরু হওয়া বিপিএলকে ঘিরে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম পাড়া এখন পুরোপুরি প্রস্তুত। মাঠের সবুজাভ ঘাস থেকে শুরু করে মাঠের বাইরের সকল কর্মসূচি। বলা যায় গোটা বৃহত্তর সিলেটের নগর-বন্দর, মফস্বল-গ্রাম এখন ঘরের মাঠের বিপিএলের উন্মাদনায় মগ্ন-বিমগ্ন!

বাকি শুধু একটাই! হেমন্তের মধ্যহ্নে ২২ গজে বল গড়ানোর অপেক্ষা। স্বাগতিক সিলেট সিক্সার্স ও বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়ানামাইটসের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে বিপিএলে অভিষেক হতে যাচ্ছে নয়নাভিরাম সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। যে মাঠের ইতিহাসে অভিষেক বিপিএলের প্রথম বল ছুঁড়বেন সিলেট সিক্সার্সের লিয়াম প্ল্যাংকেট কিংবা কামরুল ইসলাম অথবা ঢাকার মোহাম্মদ শহিদ কিংবা আবু হায়দার রনি। ব্যস, এতটুকু হওয়ার অপেক্ষা শুধুই। সঙ্গে ব্যাট হাতে দাঁড়াবেন ব্যাটসম্যানরা। আর মাঠের গর্জন আছড়ে পড়বে পাশ্ববর্তী চায়ের বাগানে কিংবা স্টেডিয়াম সংলগ্ন ছোট্র কোন কুড়ে ঘরে।

বিপিএল এই নিয়ে পঞ্চম সংস্করণে পা দিতে চলল। ২০১২ সাল থেকে যাত্রা শুরু হয়েছে ঘরোয়া টি-২০’র জমজমাট এই আসরের। ইতিমধ্যে আয়োজন করা চার আসরের খেলাগুলো গড়িয়েছে দেশের মোট চারটি ভেন্যুতে। বিপিএলের হাতেখড়ির আসর অনুষ্ঠিত হয়েছিল হোম অব ক্রিকেট মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও বন্দর নগরী চট্টগ্রামের সাগরিকাস্থ জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

পরের আসরে (২০১৩) মিরপুরের পাশাপাশি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় দক্ষিণ বঙ্গের খুলনার আবু নাসের স্টেডিয়াম ও চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে। তৃতীয় ও চুতর্থ আসরের খেলা মিরপুর ও জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। আর এবারে বিপিএলের সিজন ফাইভে এসে অভিষেক হতে চলেছে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। একে প্রাণের শহরে এতো বড় আয়োজন তার উপর আবার নিজের শহরের দল খেলতে নামবে মাঠে। তাই ঘরের মাঠে বসে প্রিয় দল কিংবা প্রিয় খেলোয়াড়ের ব্যাট-বলের লড়াই উপভোগ করতে মুখিয়ে আছেন ক্রিকেট পাগল সিলেটের দর্শকরা।

বিপিএল সিজন ফাইভে অংশ নেওয়া সাত ফ্র‍্যাঞ্চাইজির প্রায় সবাই এখন সিলেটে অবস্থান করছে। বাংলাদেশের টি-২০ ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই ঘরোয়া টুর্নামেন্টে ক্রিকেটারদের জন্য আবাসন, যাতায়াত ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে ইতিমধ্যে। এখন বাকি শুধু সবুজের মাঝে নয়নাভিরাম এই মাঠে বল গড়ানো দেখা আর চার-ছয় উপভোগ করা। যার জন্য উন্মাদনায় মেতে আছেন গোটা সিলেটবাসী।

বিপিএল উপলক্ষ্য সিলেট শহরের চেহারা বদলে গেছে অনেক। বিভিন্ন পয়েন্টে রাতের বেলা হরেক-রকম রঙের বাতি জ্বলে উঠছে একের পর এক। সিলেট সিক্সার্সের লগো সম্বলিত পতাকা আর প্রচারণায় ছেয়ে যাচ্ছে সিলেট। যেন ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে পড়েছে চারিদিকে। সকাল হলেই সেই ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে করতে দুপুর গড়ানোর আগেই মাঠে গিয়ে উপস্থিত হবেন দর্শকরা। আর সমর্থন দিবেন প্রিয় দলকে।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.