মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে ৩০ নভেম্বর হরতাল

খুচরা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে আগামী ৩০ নভেম্বর সারা দেশে আধা বেলা হরতাল ডেকেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা।

আজ বৃহস্পতিবার সিপিবি ও গণসংহতি আন্দোলনের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম ৩৫ পয়সা বৃদ্ধির প্রতিবাদে আগামী ৩০ নভেম্বর সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হরতাল আহ্বান করা হয়েছে।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘সারা দেশে অব্যাহত লুটপাটের ধারাবাহিকতায় সরকার আবার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে। ইউনিটপ্রতি ৩৫ পয়সা বৃদ্ধির ঘোষণা দেওয়ার মাধ্যমে বর্তমান সরকার অষ্টমবারের মতো দাম বৃদ্ধি করল। অথচ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে সর্বশেষ গণশুনানিতে জ্বালানি বিশেষজ্ঞ, ভোক্তা প্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের যুক্তি-তর্ক ও তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণে স্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়েছে বর্তমান সময়ে দাম বাড়ানোর কোনো যৌক্তিকতাই নাই উপরন্তু দাম কমানোর পরিস্থিতি বিদ্যমান। বিপরীত দিকে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনও (বিইআরসি) বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির পক্ষে কোনো যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারেনি। তারপরও সরকার নির্লজ্জভাবে জনমতের তোয়াক্কা না করে স্বেচ্ছাচারী কায়দায় বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করার ঘোষণা দিয়েছে।’

বিবৃতিতে জোনায়েদ সাকি আরো বলেন, ‘বিইআরসির গণশুনানিতে দাম বৃদ্ধির যৌক্তিকতা উপস্থাপন না করতে পেরেও দাম বাড়ানোর মাধ্যমে সরকার মূলত বিইআরসিকে একটি মর্যাদাহীন প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছে এবং গণশুনানিকে একটি প্রহসনে রূপান্তর করেছে।

আগামী ৩০ নভেম্বর সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সারা দেশে সর্বাত্মক হরতাল পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন জোনায়েদ সাকি।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.