শনিবার, ২৬ মে, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
জকিগঞ্জে বৃহত্তর খলাছড়া প্রবাসী কল্যান সংস্থার আহবায়ক কমিটির আত্মপ্রকাশ  » «   জকিগঞ্জ বিদ্যুতের অভিযোগ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ  » «   পাঠানচক প্রবাসী জনকল্যাণ সংস্থার কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও দরিদ্রদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠান শনিবার  » «   প্রতিবন্ধী ও দরিদ্রদের মধ্যে জকিগঞ্জ এইচটিএ সেবা ফাউন্ডেশনের চাল বিতরণ  » «   সিলেট তিব্বিয়া কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর, জকিগঞ্জের সন্তান আব্দুর রবের ইন্তেকাল  » «   দূর্ঘটনায় নিহত জকিগঞ্জের সালমান আহমদ সুমনের দাফন  » «   দরিদ্র, প্রতিবন্ধীদের নিয়ে জকিগঞ্জ এইচটিএ সেবা ফাউন্ডশনের ইফতার  » «   বারহাল ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন  » «   জকিগঞ্জে ফার্মাসিউটিকেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ এসো: কমিটি গঠন  » «   বাসের ধাক্কায় জকিগঞ্জের সুমনের মর্মান্তিক মৃত্যু  » «  

বাবা দিবসঃ আমারও কি ইচ্ছে হয় না….!!

12115948_1634045516849763_9124607551184310418_n

পৃথিবীতে বাবার তুলনা কেবল বাবাই
আরা বাবা হারানোর বেদনা সেই বেশি বুঝে,
যে আমার মত ছোট বেলায বাবাকে হারিয়েছে।

আমারও কি ইচ্ছে হয় না …….
—————————————
বাবা, আমার ও কি ইচ্ছে হয় না, আমার ও কি মন চায় না মন ভরে বাবার মুখটা দেখি, প্রাণ ভরে বাবাকে বাবা বলে ডাকি। ইচ্ছে হয় ঠিকই কিন্তু সব ইচ্ছে তো আর জীবনে পূরণ হয় না।সবই নিয়তির খেলা।।

দু’টি মাত্র বর্ণ দিয়ে কি মধুর ডাকের একটা শব্দ ‪#‎বাবা,
যা সন্তানদের জন্য আল্লাহ প্রদত্ত অনেক বড় একটি পুরস্কার। সেই পুরস্কার টা আমিও পেয়েছিলাম তবে সেই পুরস্কার খুব বেশি দিন বুকে আগলে ধরে রাখতে পারি নি!!! যখন মাত্র ৫বছরেরর খোকা ছিলাম যখন এই মহামূল্যবান পুরস্কার টি হারিয়ে ফেলেছি।
শুনতাম মা-বাবার ছোট সন্তান টি নাকি একটু বেশি আদর-ভালবাসা পায়। সে দিক থেকে এই সৌভাগ্য টা কিন্তু আমার হয়েছিলো,পাঁচ বছর বয়স পর্যন্ত বাবার সেই আদর ভালবাসা ঠিক পেয়েছি কেবল, কিন্তু সেই আদর -ভালবাসা বুঝার বয়স হওয়ার আগেই আমার মত হতবাগার জীবনে ভালবাসা পাওয়ার সৌভাগ্যটা খুব সহজে দুর্ভাগ্যে পরিণত হয়ে যায়।

” বাবার সেই ছোট্ট ছেলে”
———————————
আমি যে বাবা ছোট ছেলে
কেমন কপাল আমার,
বাবার জীবন কেড়ে নিলো
সেই মরনব্যাধি ক্যান্সার।
চোট্ট বেলায় দেখেছি বাবাকে
অসুখে ভোগে কতো না কষ্ট করিতে,
দুঃখ আমার শুধু একটাই বুকে
আজ বাবা নেই বেঁচে পৃথিবীতে।
কি আর করার ছিলো, আমরা বাবাকে যতটুকু ভালবাসতাম তার চেয়ে বেশি বাবাকে ভালবাসতো ঐ ক্যান্সার নামের অসুখটি। অসুখের ভালবাসার কাছে আমাদের ভালবাসা হযতো খুব নগণ্য ছিলো তাই তো আমাদের ভালবাসা বাবার অসুখের কাছে হার মানিয়েছিল।আর বাবাও আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন ওপারে।
বাবা জানো? আমার সেই ছেলে-মানুষি টা আজ অনেকটা কমে গেছে। তুমি মারা যাওয়ার পর যখন কেউ কোনভাবে কষ্ট দিলে কিংবা তোমার কথা যখন মনে পড়তো তখন বাড়ীর পাশের ঐ কবর স্হানে তোমার কবরের পাশে গিয়ে দাড়িয়ে তোমার কাছে সব আবদার গুলো বলতাম তখন মনে মনে ভাবতাম যে বাবা তুমি ওখান থেকে সব কিছু শুনছো। আর আজ…. তোমার কথা মনে পড়লে হৃদযে ক্রন্দন হয় যা দেখার কেউ থাকে না।

বাবা, তোমাকে বাবা বলে ডাকার যে আকাঙকা, তোমাকে কে ছোট বেলায় হারানো যে বেদনা, তোমাকে সব সময় পাশে না পাওয়ার যে শূণ্যতা, তোমার কাছ থেকে আমার পাওনা বকেয়া আদর ভালবাসা আর বাবা তোমার সাথে সবসময় না থাকার যে দুঃখ কষ্টগুলো সেগুলো আমার মনে বিরাজ করবে আমার মৃত্যু পর্যন্ত কেননা কিছু শূণ্যস্তান কখনো পূরণ হয় না।
বাবা জানো, মসজিদে যাওয়ার পর ঐ পান্জাবী, টুপি পরা আর কি সুন্দর দাঁড়িওয়ালা মুরব্বীদের মধ্যে তোমাকেই খুজি আজও। ওদের দেখলে খুব মায়া হয় বাবা।
মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে মন ভরে দোয়া করি বাবা, তুমি যেন জান্নাতবাসী হও। মহান আল্লাহ তায়ালা যেন তোমাকে জান্নাতুল ফেরদাউস দান করেন। আমিন।

পৃথিবীর সকল বাবাদের প্রতি আমার বিনম্র শ্রদ্বা ও প্রাণভরা ভালবাসা রইলো। যাদের বাবা বেঁচে আছেন তারা সবাই যেন দীর্ঘজীবি হন। আমিন।

লেখাঃ- মোঃ আব্দুল আউয়াল পলাশ
(বাবার সেই ছোট ছেলে)
১৯/০৬/২০১৬

 

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.