শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ফুলতলী ছাহেবকে নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্যের জেরে হামলা ভাংচুর, আহত ৫

FB_IMG_1495213610608

এনামুল হক মুন্না: আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরী ফুলতলী ছাহেবকে নিয়ে ফেসবুকে একটি মন্তব্যের জের ধরে জকিগঞ্জের ফুলতলী এতিমখানার ছাত্রদের হামলায় ফুলতলী গ্রামের গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর পুত্র উপজেলা ছাত্রলীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হাসিব চৌধুরীর বসতঘরে হামলা ও ভাংচুর চালানো হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলায় আহতরা হলো, ফুলতলী গ্রামের গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী খসরু(৬৫), তার স্ত্রী আয়শা পারভিন (৪৫), মেয়ে তাহমিনা জান্নাত মিম (২৫), তানজিনা জান্নাত জনি (১৫) ও গিয়াস উদ্দিনের ভাই নজরুল ইসলামের শিশু পুত্র মিফতাউল ইসলাম (৪)। আহতদের স্থানীয় জকিগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অবশ্য গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি ভয়, আতংকে গুরুতর অসুস্থ হয়েছেন বলে থানার এসআই ইমরোজ তারেক জানিয়েছেন। বর্তমানে তিনি সিলেটের ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শুক্রবার বিকেলে সরেজমিনে দেখতে যান উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ, প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ। তাদের কাছে ক্ষতিগ্রস্থ বাড়ির লোকজন বর্ণনা দেন। হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ বাড়ির মালিক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর ভাই কমর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ফেসবুকে বর্তমান ছাহেব কিবলা ফুলতলীকে নিয়ে একটি মন্তব্যের প্রেক্ষিতে স্থানীয়ভাবে গতকাল রাত ৯টার দিকে আপোষ মিমাংশা হয়। ধারনা করা হচ্ছে আমার ভাতিজা হাসিব আহমদ চৌধুরী এ মন্তব্য করেছে।আপোষ মিমাংশার পর আমি নিজেও ছাহেব বাড়িতে গিয়ে মাফ চেয়েছি। ছাহেব জাদা মাওলানা শিহাব উদ্দিন চৌধুরী ফারুক খুবই সন্তুষ্ট হন।কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যে আমার বাড়িতে হামলা করে লতিফিয়া এতিমখানার ছাত্ররা। হামলাকারিরা গাছ পালা, টমটম ও বসতঘরের আসবাব পত্র ভাংচুর করে।এতে আহত হন অনেকেই। এমন ঘটনায় বিস্মিত ও হতবাক হয়েছি। এ ব্যাপারে অতিরিক্তি পুলিশ সুপার ( জকিগঞ্জ সার্কেল) মোস্তাক সরকার জকিগঞ্জ বার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বর্তমান ফুলতলী ছাহেবকে নিয়ে ফেসবুকে একটি মন্তব্যের কারণে এতিমখানার ছাত্ররা ছাত্রলীগের হাসিবের বাড়িতে হামলা চালানোর খবর পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশ উপস্থিত হয়। পুলিশ উভয় পক্ষকে শান্ত করে আহতদের এ্যাম্বুলেন্সে হাসপাতালে পাঠায়।

জকিগঞ্জ থানার এসআই ইমরোজ তারেক হামলার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমরা সেখানে পৌছে দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। পরে আহতদের আমরা হাসপাতালে প্রেরণ করি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাওলানা শিহাব উদ্দিন চৌধুরী ফারুক জকিগঞ্জ বার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এই হামলা সেই বাড়িতে হয়নি, মনে হচ্ছে, আমাদের বাড়িতে হামলা করা হয়েছে। এটা অত্যন্ত দু:খজনক ঘটনা। কারা তাদের ইন্ধন বা উত্তেজিত করেছে, তা আমরা খতিয়ে দেখছি। জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

মাওলানা হুছাম উদ্দিন চৌধুরী ছাহেব জাদায়ে ফুলতলী জকিগঞ্জ বার্তা টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা। এমন অপ্রত্যাশিত ও অনাকাঙ্কিত ঘটনা কখনো এমনটি ঘটেনি। বিষয়টি জানার পর পরই রাতে জকিগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীকে দেখতে যাই। আজও সেই বাড়িতে আমি ও আমার বড় ভাই মাওলানা শিহাব উদ্দিন চৌধুরী ফারুক গিয়েছি। তাদের প্রতি সমবেদনা ও সহানুভূতি জানিয়েছি। এই হামলায় তাদেরকে (এতিমখানার ছাত্র) কে বা কারা উস্কে দিয়েছে, তাদেরকে আমরা খুঁজে বের করব। জড়িতদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ পাশের বাড়ির বাসিন্দা, জকিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল খায়ের চৌধুরী জানান, এমন ঘটনা সত্যিই দু:খজনক। বিষয়টি স্থানীয় মুরব্বীয়ানগণ গতকাল রাতে আপোষ মিমাংসা করে দিয়েছেন্। সেই সালিশ বৈঠকে আমিও ছিলাম।সন্দেহাতিতভাবে উপজেলা ছাত্রলীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হাসিব চৌধুরীকে অভিযুক্ত করার পর সে এ বিষয়টির জন্য মাফ চায়।স্বজনরা তাকে তীব্র ভাষায় বকাঝকাও করেন। কিন্তু এর পরও কেন এভাবে হামলা করা হলো। প্রকৃতপক্ষে এ হামলাকে নৈতিক শিক্ষা, সু-শিক্ষার অভাবকে দায়ী করেন তিনি। ইউপি চেয়ারম্যান মাহতাব হোসেন চৌধুরী জানান, ফেসবুকে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বৃহস্পতিবার রাত অনুমান ১১টার দিকে হামলার ঘটনা ঘটেছে। যেহেতু অপ্রত্যাশিত ঘটনা, সেহেতু এটি আপোষ মিমাংসার চেষ্টা চলছে। আশাকরি বিষয়টির আশু সমাধান হবে।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.