মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে সিলেট জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি কারাগারে

জাল গ্রেফতারি পরোয়ানার মাধ্যমে নিজ দলের প্রতিপক্ষ নেতাকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেলেন সিলেট জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম ফারুক।

অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে রোববার রাত রাত ৯টায় সিলেটের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক নজরুল ইসলাম তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজি আবদুল হান্নানের নির্দেশে ওয়ারেন্ট জালিয়াতির বিষয়টি তদন্ত করে বিএনপির ওই নেতার সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পান আদালত।

এরপর নগরীর পাঠানটুলার বাসা থেকে সন্ধ্যায় তাকে আটক করে আদালতে হাজির করে পুলিশ। পরে আদালতের নির্দেশে কোর্ট ইন্সপেক্টর নিজাম উদ্দিন চৌধুরী তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে নিশ্চিত হন তিনি এ জালিয়াত চক্রের সঙ্গে জড়িত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, এর আগে ওসমানী নগর থানা পুলিশ বুরুঙ্গা গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে সাজ্জাদুর রহমানকে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিআর ৭৯/১৫ নম্বর মামলায় গ্রেফতার করে রোববার আদালতে পাঠান।

একপর্যায়ে বিচারকের স্বাক্ষর জাল করে ও জাল ওয়ারেন্ট ইস্যুর বিষয়টি নজরে আসে। এরপর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার জন্য সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আদালতের বিচারক নজরুল ইসলামকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

এর পরপরই ডিবি পুলিশের সহায়তা নিয়ে তিনি তদন্ত করে দেখতে পান আদালতের বিচারক ও পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামানের স্বাক্ষর জাল করে মিথ্যা কাগজপত্র দিয়ে জাল ওয়ারেনন্ট ইস্যু করা হয়েছে।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.