সোমবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
জকিগঞ্জসহ সারাদেশে প্রাইমারী দপ্তরী নিয়োগ স্থগিত করলেন মন্ত্রী  » «   শিলচরে বাংলাদেশী বন্দিদের খোঁজ নিলেন ডেপুটি হাই কমিশনার  » «   ইছামতি কামিল মাদ্রাসায় সংবর্ধনা পেলেন ডক্টর আহমদ আল কবির এবং আলহাজ্ব শামীম  » «   শাহগলী আদর্শ শিশু বিদ্যানিকেতনের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন  » «   স্বর্ণ পদক’ অর্জন করায় শাহবাগে শিহাব উদ্দিন সংবর্ধিত  » «   শাহগলী আদর্শ শিশু বিদ্যানিকেতনের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান বুধবার  » «   বারহালে আওয়ামীলীগ এর মতবিনিময় সভায় আলহাজ্ব মাসুক উদ্দিন আহমদ  » «   বারহা‌লে দি স্টু‌ডেন্ট ডে‌ভেলাপ‌মেন্ট ক্লাব(চক বুরহানপুর)এর ক‌মি‌টি গঠন   » «   জেলা পর্যায়ে মেধা বৃত্তি পেলেন জকিগঞ্জের ইছামতি কামিল মাদ্রাসার নয় মেধাবী শিক্ষার্থী  » «   জকিগঞ্জ উপজেলা উন্নয়ন পরিষদ ফ্রান্সের পক্ষ থেকে আলী রেজার পরিবারকে নগদ অর্থ প্রদান  » «  

পাওনা টাকা চাওয়ায় সিলেটে আ. লীগ নেতা খুন

পাওনা টাকা চাওয়ায় পরিকল্পিতভাবে সিলেট নগরে কুয়েত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম আব্দুল আহাদকে খুন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) ঘটনার সঙ্গে জড়িত গ্রেফতার সিরাজুল ইসলাম সরুকী (৩২) ও ফখরুল ইসলাম শান্তকে (৩৫) জিজ্ঞাসাবাদের দুই দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। গত সোমবার (৩ সেপ্টেম্বর) সিলেট চিফ মেট্রোপলিটন আদালতে গ্রেফতারদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য ১০ দিনের আবেদন করা হয়। এরপর মঙ্গলবার শুনানি শেষে বিচারক ওই দুজনের দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার এসআই অনুপ কুমার চৌধুরী। বলেন, ‘মামলার এজাহারে নিহতের স্ত্রী উল্লেখ করেন তার স্বামী বিয়ানীবাজারের চারখাই গ্রামের মুরাদ নামে এক ব্যক্তির কাছে টাকা পাওনা ছিল। মুরাদ এখন দেশে নেই। পুলিশের ধারণা, সে কুয়েতে রয়েছে। মুরাদের কাছ থেকে পাওনা টাকা আহাদকে আদায় করে দেওয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করেছিলেন গ্রেফতার সরুকী ও শান্ত। এরপর এই হত্যাকাণ্ডে ঘটনা ঘটেছে।’ মামলা তদন্তের স্বার্থে এর বাইরে আর কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ থানার শ্রীসূর্য ওসমান নগর গ্রামে বাসিন্দা সিরাজুল ইসলাম সরুকী দক্ষিণ সুরমার টেকনিক্যাল রোডের খাদ্য গুদামের পেছনের একটি বাসায় থাকেন। অপরদিকে জকিগঞ্জের বিরশ্রী গ্রামের বাসিন্দা শান্ত দক্ষিণ সুরমার সাধুর বাজার টেকনিক্যাল রোডে বসবাস করে আসছেন।
গত ২ সেপ্টেম্বর কোতোয়ালি থানা পুলিশ তাদেরকে নগরের বন্দরবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। হত্যার ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় নিহতের স্ত্রী রাসনা বেগম বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাত ৫/৬ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা নং-১ (২.৯.১৮) দায়ের করেন। নিহত আহাদ মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর থানার খলাগাঁও গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ সূত্র জানায়, আহাদের সাথে বিয়ানীবাজারের চারখাই গ্রামের মুরাদ নামে যে ব্যক্তির সঙ্গে টাকা নিয়ে বিরোধ ছিল, পুলিশ সেবিষয়টি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। অনেকটা মামলায় গতিও এসেছে।
পুলিশও ধারণা করছে, টাকা লেনদেন সংক্রান্তের জের ধরেই এই হত্যাকাণ্ডে ঘটনা ঘটেছে। আর যারা এই হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয় তারা ভাড়াটে খুনি। পুলিশ হত্যকারীদের গ্রেফতারের পাশাপাশি হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন কৌশলে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।
নিহত আহাদকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে। সিলেট নগরের তাঁতিপাড়াস্থ ঘটনাস্থলেই তিনি অনেকটা নিস্তেজ হয়ে পড়েন। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণেই আহাদের মৃত্যু হয়। নিহত আহাদের পিঠের ডান পাশে দুটি, বাম পাশে একটি, কোমরের নীচে চারটি ও হাঁটুর নীচে তিনটি ধারলো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। এছাড়াও তার শরীরে আরও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে সুরতহাল রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়।
মামলা সূত্র জানায়, গত ৩০ আগস্ট আহাদ নিজ বাড়িতে থেকে সিলেট আসার পর ফের বিকাল ৫টার দিকে বাড়ি ফিরে যান। ওইদিন রাত ১২টার দিকে সরুকী ও শান্ত জানায় আহাদকে মোবাইলে জানায় , মুরাদের কাছে পাওনা টাকা তাদের কাছে রয়েছে। এ নিয়ে সরুকী তার বাসায় একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে আহাদকে দাওয়াত দেন। এরপর ৩১ আগস্ট সকাল ১০টায় আহাদ নিজ বাড়ি থেকে হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজারে যোহরের নামাজ আদায় করে সরুকীর বাসায় যান।
মামলার বাদী আহাদের স্ত্রী মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, সরুকীর বাসায় যাওয়ার বিষয়টি তার স্বামী তাকে মোবাইলে জানান।
তদন্ত সংশ্লিষ্ট পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, নিহত প্রবাসী আব্দুল আহাদের সঙ্গে বিয়ানীবাজারের চারখাই এলাকার মুরাদ নামে এক ব্যক্তির কাছে মোটা অঙ্কের টাকা পাওনা ছিল তার। এনিয়ে মুরাদ নামে ওই ব্যক্তির সঙ্গে বিরোধ ছিল আহাদের। সেই টাকা কিছু দিনের মধ্যে পরিশোধ করার জন্য সময় নেন সরুকী ও শান্ত। ৩১ আগস্ট সকাল ১০টায় সরুকীর বাসায় একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দেন আহাদ । এরপর ওইদিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে আহাদ নগরের তাঁতিপাড়া এলাকায় হামলার শিকার হন।
তিনি আরও জানান, পুলিশ প্রাথমিক তদন্ত, স্বাক্ষ্য প্রমাণ ও প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ঘটনার তারিখ ও সময়ে সরুকী এবং শান্তর উপস্থিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ায় তাদের রিমান্ডে নেওয়া হয়।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

Developed by:

.