রবিবার, ২৪ জুন, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
২২টি গ্রামে বৃহত্তর ইছামতি কালিগঞ্জ প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা’র ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   সোনাপুর-সুপ্রাকান্দি ডেভল্যাপমেন্ট সোসাইটির ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   কাতারে জকিগঞ্জের আব্দুল মুহিম মিনুর মৃত্যু  » «   জকিগঞ্জে ১৩০বোতল অফিসার চয়েজসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   শাহ মোঃ ফয়ছল চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সম্পন্ন  » «   বৃহত্তর আটগ্রাম প্রবাসী সমাজ কল্যাণ পরিষদের ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   প্রতিবন্ধী ও দরিদ্রদের মধ্যে স্পেন প্রবাসী মাসহুদের ইফতার  » «   ইউএনও শহীদুল হকের ইন্তেকালে এইচটিএ সেবা ফাউন্ডেশনের শোক  » «   জকিগঞ্জে এমপি প্রার্থী এম জাকির হোসাইনের সমর্থনে ইফতার  » «   জকিগঞ্জের সাবেক ইউএনও শহীদুল হকের দাফন  » «  

নদী ভাঙ্গন রোধ সচেতনতায় সাবেক এমপি ওবায়দুল হক উজিরপুরী র.

দিন দিন পরিবর্তন হচ্ছে ভাঙ্গনের দ্বারা বাংলাদেশে সিলেট জেলার আলেম উলামা অধ্যূষিত জকিগন্জের বীরশী ইউনিয়নের একটি জনবহুল গ্রাম। যেই গ্রামে শায়িত আছেন সিলেট-৫ (জকিগন্জ- কানাইঘাট)আসনের সাবেক এম পি শাইখুল হাদীস আল্লামা ওবায়দুল হক উজিরপুরী রহ:,শেওলা জকিগন্জ রোডের বাস্তবায়নকারী, ১৯৯১ সন থেকে প্রতিটি অধিবেশনে সংসদে উপস্থাপনকারী নদী ভাংগনের প্রতিরোধের ব্যবস্তা গ্রহনের কথা এবং প্রতিটি পাড়া মহল্লার ওয়াজ মাহফিলে ও সভা অনুস্টানে যার একটাই কথা ছিল নদী ভাংগনের ফলে বাংলাদেশের মানচিএ ছোট হচ্ছে। বিশেষ করে সীমান্তবর্তী জকিগন্জের অবস্তা করূন প্রতিনিয়ত ভাংঙছে ।
তাই সরকারের সেদিকে সুদৃস্টি করতেই হবে বলেই প্রতিটি বাজেট বক্তৃতায় নদী ভাঙনের প্রতিরোধের জন্য পাথর,ব্লক বা গাড দেওয়ালের দ্বারা এর ব্যবস্তা নেয়ার জোর দাবী জানাতেন।অধ্যবদি এর কোন উল্লেখযোগ্য কিছু পরিলক্ষিত হচ্ছে না বলেই অনেক স্মারকলিপি প্রধানের পর কোন সংস্কার হয়নি। এমন কি অনেক পূবে টেন্ডার পাশ হয়ে ও ব্লকের কাজ কেন আঠকে আছে তা বোধগম্য নয়!!!! তাছাড়া অনেক মাদ্রাসা মসজিদ প্রাথমিক স্কুল, মাধ্যমিক স্কুল সহ অসংখ্য প্রতিষ্ঠান, ঘর-বাড়ী,ক্ষেতের জমি নদীতে তালিয়ে গেছে ও অনেক মানুষের ঘর বাড়ী নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে যার ফলে বাধ্য হয়ে ঋন করে নিজ খরচে স্তানান্তর করে ঘর বাড়ী নির্মাণ করছে। এমনি মক্তব,স্কুল বার বার স্তানান্তর করার শিক্ষাক্ষেএ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।তাই বর্তমানে কুশিয়ারা নদীর ভয়ানক ভাঙ্গনের ফলে উজিরপুর,বড়চালিয়া,লক্ষীবাজার,বারজনী সহ অসংখ্য গ্রাম নদীতে তালিয়ে যাচ্ছে।
বিশেষ করে আজকে আবার হঠাৎ করে সাবেক এম পি শাইখুল হাদীস আল্লামা ওবায়দুল হক রহ: বাড়ীর পূব পাশের তথা বাড়ীর সামনে অংশ ভাঙ্গার ফলে হযরতের বাড়ীসহ হযরতের ইবাদাতখানা যে ইবাদাতখানায় শাইখে মামরখানী রহ: শাইখে বাইয়মপুরী রহ: শাইখে চকরিয়া রহ: শাইখে বাঘা রহ: শাইখে রায়পুরী রহ: সহ অসংখ্য ওলী আউলীয়াদের মিলন মেলা হত এবং অসংখ্য অগণিত মানুষের বসত বাড়ী-ভিটে মাঠি ও ক্ষেতের জমি বিলীন হতে চলেছে ।তাই যদি জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা না নেওয়া হয় তাহলে অএ অঞল বাংলাদেশের মাণচিএ থেকে হারিয়ে যাবে।এমতাবস্থায় মহামারী আকারে রুপ নিচ্চে জকিগঞ্জের সীমান্ত বিলিন হয়ে যাওয়া ও নদী ভাঙ্গন,নদী ভাঙ্গনের ফলে মানুষ ঘর বাড়ি হারিয়ে হচ্ছে অসহায়,দেশ হারাচ্ছে নিজস্ব ভূখন্ড,আমাদের উপজেলা হারাচ্ছে সীমানা।
সুতরাং বাংলাদেশ সরকারের সমাজকল্যাণ ও যোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী, কমকতা এবং স্তানীয় জন প্রতিনিধি এম পি , চেয়ারমান,মেম্বারের ও সাংবাদিক বৃন্দের সরজমিনে এসে দেখান জন্য এবং সুদৃস্টি দিয়ে জরুরী ভিত্তিতে এর ব্যবস্তা-পদক্ষেপ নেওয়ার আহব্বান জানাচ্ছি।

লেখক: এইচ আর মাহফুজ (মরহুম ওবায়দুল হক উজিরপুরী র. এর নাতি)।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.