মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

তিন ‘তালাক’ বললেই স্বামীর তিন বছরের জেল!

তিন তালাকের মাধ্যমে বিয়েবিচ্ছেদের চেষ্টার জন্য স্বামীকে তিন বছরের সাজার প্রস্তাব করে ভারতে একটি নতুন আইনের খসড়া তৈরি করা হচ্ছে। খবর বিবিসির।

মতামতের জন্য ‘মুসলিম উইমেন প্রটেকশন অব রাইটস অন ম্যারেজ বিল’ নামে ওই বিলটি এখন আঞ্চলিক সরকারগুলোর কাছে পাঠানো হচ্ছে।

মুসলিমদের তাৎক্ষণিক তালাকের এই প্রথায় স্বামী মুখে তিনবার ‘তালাক’ শব্দটি উচ্চারণ করেই বা ইমেল বা টেক্সট মেসেজে লিখে পাঠিয়েই স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে ফেলতে পারে।

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট গত আগস্টে তিন তালাকপ্রথাকে অবৈধ ঘোষণা করে। কিন্তু কর্মকর্তারা বলছেন, তা সত্ত্বেও ‘তিন’ তালাক’ বন্ধ হয়নি।

তাই ভারতে এখন এমন এক আইনের প্রস্তাব করা হচ্ছে, যাতে তিন তালাকের জন্য স্বামীর তিন বছরের সাজা, জরিমানা এবং এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত স্ত্রীর জন্য ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা থাকবে।

নতুন ওই আইনে সুস্পষ্টভাবে তিন তালাক নিষিদ্ধ করার বিধান থাকবে। এ ছাড়া  স্ত্রীর ভরণপোষণ ও সন্তানদের লালনপালনের দায়িত্বের বিষয়েও সুস্পষ্ট নির্দেশনা থাকবে।

স্বামী যদি স্ত্রীকে ঘর ছেড়ে চলে যেতে বলেন, তখন যেন স্ত্রীর আইনি সুরক্ষা থাকে, সে জন্যই এসব বিধান রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এক ভারতীয় কর্মকর্তা।  যে খসড়াটি তৈরি করা হয়েছে, তাতে স্বামীর জামিনের কোনো বিধান রাখা হয়নি।

ভারতীয় পার্লামেন্টের শীতকালীন অধিবেশনে এ বিলটি পর্যালোচনা করা হতে পারে। এ মাসের মাঝামাঝি এই অধিবেশন শুরু হবে।

এর আগে পাঁচজন মুসলিম মহিলা তিন তালাকপ্রথাকে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন আদালতে। তাদের মামলাতেই ভারতের সুপ্রিম কোর্ট তিন তালাক প্রথাকে অবৈধ বলে রায় দেয়।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.