শনিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
পাঠানচক প্রবাসী জনকল্যাণ সংস্থার বৃত্তি ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান  » «   আনজুমানে আল ইসলাহ ফ্রান্সের উদ্যোগে আল্লামা ছাহেব কিবলাহ ফুলতলী (রহঃ) এর ঈছালে সাওয়াব মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   জকিগঞ্জ ঐক্য পরিষদ ফ্রান্সের ৪র্থ বর্ষপূর্তি ও দ্বিবার্ষিক কার্যকরী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন:  » «   ঈসালে সাওয়াব মাহফিলে আল্লামা ইমাদ উদ্দিন ফুলতলী ; বিপন্ন মানুষের সেবায় এগিয়ে আসুন  » «   আল্লামা ফুলতলী ছাহেব (র.)’র ১০ম ইন্তেকাল বার্ষিকী আজ:: প্রস্তুত জকিগঞ্জে ঐতিহাসিক বালাই হাওর  » «   ছেলে হত্যার বিচার চান সালমানের মা বাবা  » «   জকিগঞ্জে রয়েল ট্রাভেলস এর উদ্বোধন  » «   বৃহত্তর আটগ্রাম প্রবাসী সমাজ কল্যাণ পরিষদ কর্তৃক শীত বস্ত্র বিতরণ সম্পন্ন  » «   জকিগঞ্জ ফাজিল সিনিয়র মাদ্রাসার প্রাক্তন ছাত্র পরিষদের সভা ১৬জানুয়ারি  » «   জকিগঞ্জ রয়েল ট্রাভেলসে অফিস সহকারি নিয়োগ দেওয়া হবে  » «  

জকিগঞ্জ আদালতের সহায়তায় ২২বছর পর পরিবারের কাছে ফিরলেন দুই বৃদ্ধ

zakiganaj barta

নিজস্ব প্রতিবেদক: জকিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোহাম্মদ খাইরুল আমিনের সহযোগিতায় প্রায় ২২বছর পর পরিবারের কাছে ফিরলেন দুই বৃদ্ধ। তারা হলেন মানিকগঞ্জ জেলার মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার হাজীনগর (কসবা)গ্রামের মৃত মেল্টা মিয়ার পুত্র নজব আলী রজব(৭০)। অপরজন হলেন সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার ডাইয়া গ্র্রামের মৃত তাহির আলীর পুত্র চান মিয়া ডুডু(৬৫)। মূলত তারা দু’জনই মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন।

জকিগঞ্জ বার্তাকে আদালত সুত্র জানায়, গত বছর অর্থাৎ ২০১৬সালের ২৫ডিসেম্বর জকিগঞ্জ উপজেলার বারঠাকুরী এলাকা থেকে স্থানীয় জনসাধারণ ডাকাত বা রোহিঙ্গা বলে তাদের দু’জনকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরদিন পুলিশ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে। আদালতের বিচারক মনে করেছিলেন বৃদ্ধ  দু’জনই হয়তো ভালো মানুষ।কিন্তু তারা পূর্ণ ঠিকানা  বলতে না পারায় নিশ্চিত পরিচয় সনাক্ত করতে পারেননি। আদালত মনে করেন বৃদ্ধ বয়সে ডাকাতি তারা করবে না। হতে পারে তারা ভালো মানুষ। তাই মানবিক কারণে ঠিকানা পেতে অনেক চেষ্টা করেন আদালত। পরে বাধ্য হয়ে তাদের কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালত। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে অনেক প্রচার করার ব্যবস্থা করেন। সংবাদ মাধ্যমেও বিষয়টি প্রকাশ পায়। অবশেষে ফেসবুকের কল্যাণে ঐ বৃদ্ধ দু’জনের স্বজনরা ছুটে আসেন কারাগারে। তারা নিশ্চিত হন যে, তাদেরই স্ব স্ব পরিবারের সদস্য তারা। আদালত দু’জনকে গত ২২ ও ২৩মার্চ ছাড় পত্র দেন। প্রয়োজনীয় কাজ শেষে অবশেষে অতিসম্প্রতি সিলেট কারাগার থেকে তারা ছাড়া পান। কারা ফটকে নজব আলী রজব ও চান মিয়া ডুডুকে ফিরে পেয়ে স্ত্রী, ছেলে-মেয়েসহ স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এ সময় হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। মহান প্রভূর দরবারে শুকরিয়া আদায় করে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তাদের পরিবারের স্বজনরা।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.