শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ছাত্রলীগকর্মী শাহীনের চিকিৎসার ব্যয়ভার নিতে প্রস্তুত জকিগঞ্জের মিজান চৌধুরী

সিলেটে শিবিরের আক্রমণের শিকার হয়ে হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া ছাত্রলীগকর্মী শাহীনের উন্নত চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার বহন করতে প্রস্তুত মিজান চৌধুরী। শুধু তাই নয় প্রয়োজনে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর সকল ব্যয়ভার বহন করতেও প্রস্তুত তিনি।

মিজান চৌধুরী দীর্ঘদিন ধরে পরিবারসহ আমেরিকায় বাস করেন। পুরো নাম মিজানুর রহমান চৌধুরী। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার নিউইয়র্ক স্টেইট যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। মানবতার কল্যানে হাত বাড়িয়ে দেওয়া মিজানের বাড়ি সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার রসুলপুর গ্রামে।তিনি রসুলপুর গ্রামের মৃত হাবীবুর রহমানের দ্বিতীয় ছেলে তিনি।

তিনি জানান, সিলেটের স্থানীয় কয়েকজন ছাত্রলীগের কর্মীর মাধ্যমে জানতে পারেন সোবহানীঘাটে শিবিরের হামলায় গুরুতর আহত সিলেটের ছাত্রলীগ কর্মী আহমদ শাহিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পরবর্তীতে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে আহমদ শাহীনের চিকিৎসার সকল ব্যয়ভার গ্রহণে প্রস্তুত রয়েছেন বলে জানান।

তিনি বলেন, “আমি ইতিমধ্যে আহত শাহীনের পরিবারের সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করেছি, তার বন্ধুদের সাথেও কথা বলেছি, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতাকর্মীর সাথে যোগাযোগের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক আহমদ শাহীনের খোজ খবর নিচ্ছি। বঙ্গবন্ধুর একজন সৈনিক হিসেবে এটা আমার দ্বায়িত্ব বলে আমি মনে করি। আমি শাহিন ও আসিফের বিপদে তাদের পাশে আছি জানিয়ে তিনি সকল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের তাদের পাশে থাকার আহবান জানান।

তিনি আরো জানান, ইতিমধ্যে তিনি আমেরিকায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ এবং ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতাকর্মীর সাথেও শাহীন ও আসিফের চিকিৎসার বিষয়ে কথা বলেছেন।

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল বাসিত রুম্মান জানান, মিজান চৌধুরী আপাদমস্তক একজন বঙ্গবন্ধুর সৈনিক। শিবিরের হামলায় ছাত্রলীগকর্মী আহত শোনার পর পরই আমাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রেখেছেন। বঙ্গবন্ধুর প্রকৃত সৈনিক হিসেবে তাদের পাশে দাড়িয়েছেন, তাদের খোজখবর নিচ্ছেন, যা সত্যিই প্রশংসার যোগ্য।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার বেলা ১টার দিকে নগরীর সোবহানীঘাটে জালালাবাদ কলেজের সামনে মদন মোহন কলেজ ছাত্রলীগের কর্মী ও সিলেট সদর উপজেলার পীরপুর টুকেরবাজারের নূরুল আমিনের ছেলে শাহীন আহমদ (২২) এবং জালালাবাদ কলেজের ছাত্র উপশহরের জালাল উদ্দিনের ছেলে ছাত্রলীগকর্মী আবুল কালাম আসিফকে (১৮) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। গুরুতর আহত শাহীনকে সোমবার বিকেলেই ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। ইতিমধ্যে আহত শাহীনের একটি হাত কেটে ফেলতে হয়েছে। শিবির ক্যাডাররা এ হামলা চালিয়েছে বলে দাবি ছাত্রলীগের। (সিলেট ভিউ)

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.