বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
বৃহস্পতিবার ত্রাণ নিয়ে জকিগঞ্জ থেকে টেকনাফ যাত্রা  » «   জকিগঞ্জ-শেওলা-সিলেট সড়কে গাছ রোপন করবে সেতুবন্ধন  » «   আলোর ঝলক কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের শেষ সময় ৭অক্টোবর  » «   জকিগঞ্জ এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে অসহায় রোহিঙ্গাদেরকে সহায়তা প্রদান  » «   ঢাবি ভর্তি মেধা তালিকায় জকিগঞ্জের ফখরুল  » «   জকিগঞ্জের ইউএনও এবং এ্যাসিল্যান্ডকে সেতুবন্ধনের বিদায় সংবর্ধনা  » «   জকিগঞ্জের ইউএনও এবং এসিল্যান্ড বদলী  » «   শাহগলী আদর্শ শিশু বিদ্যানিকেতনের ২য় সাময়িক পরিক্ষার ফলাফল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন  » «   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরিক্ষার মেধাতালিকায় জকিগঞ্জের ফখরুল  » «   পিল্লাকান্দির আব্দুস ছালাম চৌধুরী অসুস্থ; দোয়া কামনা  » «  

কুয়েতের অনুরোধে কাতারকে আরও ৪৮ ঘণ্টা সময় দিল সৌদি

কাতারকে আরো ৪৮ ঘণ্টা সময় দিচ্ছে আরব দেশগুলো। আরব বিশ্বের চারটি দেশ কাতারের কাছে তাদের ১৩টি দাবির একটি তালিকা পাঠিয়ে বলেছিল এগুলো না মানলে তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা যাবে না।

সৌদি আরব, মিসর, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইন কাতারের কাছে দাবি জানিয়েছিল, আল জাজিরার সম্প্রচার বন্ধ করতে হবে।

তারা কাতারের কাছে আরও দাবি জানিয়েছে ইরানের সঙ্গে তাদের যোগাযোগ সীমিত করতে হবে এবং তুরস্কে তাদের সেনা ঘাঁটি বন্ধ করতে হবে।

এসব দাবি পূরণের জন্য কাতারকে ১০ দিন সময় দেয়া হয়েছিল। সৌদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, কাতারকে বেধে দেয়া সময় আজই শেষ হওয়ার কথা থাকলেও কুয়েতের অনুরোধে কাতারকে আরো ৪৮ ঘণ্টা সময় দিতে রাজি হয়েছে সৌদি আরব, আরব আমিরাত, বাহরাইন এবং মিসর।

কুয়েতের আমিরের অনুরোধেই কাতারকে সময় দেয়া হচ্ছে। তিনি আরব দেশগুলোর সঙ্গে কাতারের এমন ভঙ্গুর সম্পর্ক জোড়া লাগাতে মধ্যস্ততার চেষ্টা করছেন।

Qatar

আরব দেশগুলো কাতারের ওপর যেসব দাবি চাপিয়ে দিয়েছে কাতার সেগুলো মেনে নেবে কিনা সে বিষয়ে তারা কুয়েতের আমির শেইখ সাবাহ আল আহমেদ আল সাবাহকে সোমবার জানাবে। এ কারণেই কাতারকে আরো সময় দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন কুয়েতি আমির।

দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে কাতারের ওপর নজিরবিহীন কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

কয়েক দশকের মধ্যে উপসাগরীয় দেশগুলোতে এটা সবচেয়ে বড় ধরনের রাজনৈতিক সঙ্কট। কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেছেন, তার দেশ কোন বিদেশি নির্দেশনা মানবে না এবং আল জাজিরা চ্যানেল সংক্রান্ত কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবে না কারণ এটা দেশটির অভ্যন্তরীণ একটি বিষয়।

তুর্কি সামরিক ঘাঁটি বন্ধ করে দেয়াসহ আরও যেসব দাবি সৌদি আরব এবং অন্যরা তুলেছে, কাতার যে তা মানবে তার কোন সম্ভাবনাই নেই। তুরস্ক ইতোমধ্যে তাদের সামরিক ঘাঁটি বন্ধের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে।

Qatar

বুধবার সৌদি, মিসর, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কায়রোতে সাক্ষাৎ করবেন। সৌদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবেইর বলেছেন, তারা যেসব দাবি পাঠিয়েছে সে বিষয়ে আলোচনার কোনো সুযোগ নেই।

কিন্তু কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন, এই দাবি মানা যাবে না। তিনি সতর্ক করে বলেছেন, কাতারের বিরুদ্ধে যে কোনো ব্যবস্থাই নেয়া হোক না কেন কাতার তাতে ভয় পায় না।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেইখ মোহাম্মদ বিন আবদুল রাহমান আল থানি বলেছেন, ‘কোনো ভয় নেই। যা কিছুই ঘটুক না কেন কাতার এর জন্য প্রস্তুত।’

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.