বুধবার, ২৩ মে, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
বারহাল ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন  » «   জকিগঞ্জে ফার্মাসিউটিকেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ এসো: কমিটি গঠন  » «   বাসের ধাক্কায় জকিগঞ্জের সুমনের মর্মান্তিক মৃত্যু  » «   জাতীয় পার্টির যুক্তরাজ্য শাখার সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন হেলালের দেশে প্রত্যাবর্তন  » «   বারহাল ছাত্র পরিষদের আজীবন সদস্য, লন্ডন প্রবাসী আজিজ আহমদকে সংবর্ধনা  » «   সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ন ছাত্র-ছাত্রীদের সংবর্ধনা প্রদান  » «   জকিগঞ্জ-সিলেট সড়ক দ্রুত সংস্কার করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিলেন সেলিম উদ্দিন এমপি  » «   বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত জকিগঞ্জ হাসপাতাল  » «   বারহাল ছাত্র পরিষদের আজীবন সদস্য জনাব আজিজ আহমদ কে সংবর্ধনা প্রদান সম্পন্ন  » «   আল্লামা মকদ্দছ আলীর সহধর্মীনির দাফন সম্পন্ন  » «  

কারাদন্ডপ্রাপ্ত দিপুরাম; জকিগঞ্জ বার্তাকে যা বললেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জকিগঞ্জের কাজলসার ইউনিয়নের কুল নদীর অভয়fশ্রমের মাছ ধরার অভিযোগ এনে মুক্তিযোদ্ধা ও মৎস্যজীবী পরিবারের এক যুবককে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নাহিদুল করিম তাকে এক বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। এ ঘটনায় বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। সাজাপ্রাপ্ত যুবক পশ্চিম গোটারগ্রামের সোনারাম দাসের ছেলে দিপু রাম দাস (৩৫)।

এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নাহিদুল করিম জকিগঞ্জ বার্তাকে বলেন মৎস্য সংরক্ষণ আইনে তাকে সাজা দেয়া হয়েছে। সে অভয়াশ্রম থেকে মাছ ধরতো বলে স্বীকার করেছে।চাইলে সাজা কম দেওয়া যেতো এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন এই আইনটির সর্বনিম্ন সাজা হচ্ছে ১বছর। আমিও চেয়েছিলাম, তাকে সাজা কমিয়ে দিতে, আইনের কারণে কিছুই করার ছিল না। এর পরও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আপিল করলে আশা করি সাজা কমতে পারে। সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তির গায়ে শীতের কাপড় না থাকায় তার পরিবারকে বলেছি, তারা যেনো কাপড় দেন। আমি চেয়েছিলাম যতটুকু সম্ভব আসামীর প্রতি সদয় ব্যবহার করতে, কিন্তু আইনের কারণে কিছুই করা যায়নি বলে তিনি জানান।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.