রবিবার, ২৪ জুন, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
২২টি গ্রামে বৃহত্তর ইছামতি কালিগঞ্জ প্রবাসী কল্যাণ সংস্থা’র ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   সোনাপুর-সুপ্রাকান্দি ডেভল্যাপমেন্ট সোসাইটির ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   কাতারে জকিগঞ্জের আব্দুল মুহিম মিনুর মৃত্যু  » «   জকিগঞ্জে ১৩০বোতল অফিসার চয়েজসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   শাহ মোঃ ফয়ছল চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সম্পন্ন  » «   বৃহত্তর আটগ্রাম প্রবাসী সমাজ কল্যাণ পরিষদের ঈদ সামগ্রী বিতরণ  » «   প্রতিবন্ধী ও দরিদ্রদের মধ্যে স্পেন প্রবাসী মাসহুদের ইফতার  » «   ইউএনও শহীদুল হকের ইন্তেকালে এইচটিএ সেবা ফাউন্ডেশনের শোক  » «   জকিগঞ্জে এমপি প্রার্থী এম জাকির হোসাইনের সমর্থনে ইফতার  » «   জকিগঞ্জের সাবেক ইউএনও শহীদুল হকের দাফন  » «  

কানাইঘাটে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন : শাশুর শাশুড়ী আটক


আলিম উদ্দিন আলিম কানাইঘাট: কানাইঘাটের সীমান্তবর্তী লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির সোনাতন পুঞ্জি গ্রামে শনিবার (১৭ ফেব্র“য়ারী) দুপুর অনুমান ১২টায় স্বামীর হাতে নির্মম ভাবে খুন হয়েছেন স্ত্রী জাহানারা বেগম। এঘটনায় কানাইঘাট থানা পুলিশ নিহতের শ্বশুড় ও শাশুড়ীকে আটক করেছে।
জানা যায়, উপজেলার সোনাতন পুঞ্জি গ্রামের রিক্সা চালক শফিকুল হকের পুত্র ইব্রাহীম আলী উরফে ইমন (২৪) এর স্ত্রী জাহানারা বেগম (২০) শনিবার বাড়ীর পাশে একটি ছড়ায় গোসল করতে যায়। এসময় জাহানারার স্বামী ইমনের চাচাতো ভাই সিরাজ উদ্দিন (২৫) তার শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করলে স্বামী ইমন তার বাড়ীর টিলার উপর ঘটনাটি দেখতে পেয়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে সিরাজ উদ্দিনের উপর হামলার চেষ্টা করলে সিরাজ উদ্দিন পালিয়ে যায়। এসময় ক্ষুব্ধ হয়ে ইমন স্ত্রী জাহানারাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ডান পায়ের উরুতে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। রক্তাক্ত জাহানারার আর্ত চিৎকারে তার শশুড় শফিকুল হক (৫৫) ও শাশুড়ী রাহেনা খাতুন (৪৫) সহ বাড়ীর আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কতব্য চিকিৎসকরা জাহানারাকে মৃত ঘোষনা করেন।
হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে কানাইঘাট থানার ওসি (তদন্ত) নুনু মিয়া হাসপাতালে গিয়ে নিহত জাহানার শশুড় শফিকুল হক ও শাশুড়ী রাহেনা খাতুনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। ঘটনার পর থেকে ঘাতক স্বামী পলাতক রয়েছেন। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন ইব্রাহীম আলী ইমন এক বছর পুর্বে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে জৈন্তাপুর উপজেলার ছাতারখাই গ্রামের লাল মিয়ার পুত্র প্রবাসী জয়নাল আহমদের স্ত্রী জাহানারা বেগমের সঙ্গে। এসময় সে জাহানারা বেগমকে পালিয়ে এনে বিয়ে করে। বিয়ের পর এ পর্যন্ত তাদের কোন সন্তানাধি নেই। সম্প্রতি ইমন একটি ডাকাতি মামলায় আড়াই মাস জেল খেটে এক মাস পুর্বে জেল থেকে বের হয়ে স্ত্রী জাহানারাকে শশুড় বাড়ী থেকে তার বাড়ীতে নিয়ে আসে। ধারণা করা হচ্ছে ইমনের আপন চাচাতো ভাই একই বাড়ীর সিরাজ উদ্দিনের সাথে জাহানারা বেগমের পরকিয়া সম্পর্ক থাকতে পারে। শনিবার বাড়ীর পাশে জাহানারা গোসল করতে আসলে সিরাজ উদ্দিনের সাথে স্ত্রীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখতে পেয়ে স্ত্রী জাহানারাকে কুপিয়ে হত্যা করে স্বামী ইমন এমন ধারণা করছেন প্রতিবেশিরা। কানাইঘাট থানায় আটক জাহানারার শশুড় ও শাশুড়ী স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, সিরাজ উদ্দিন তাদের পুত্র বধুকে গোসল করার সময় ইজ্জত নষ্ট করার চেষ্টা করলে আমাদের ছেলে ইমন নিজেকে সামলাতে না পেরে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে সে হত্যার উদ্দেশ্যে তার স্ত্রী জাহানারার উপর আক্রমন করেনি।
কানাইঘাট থানার ওসি (তদন্ত) নুনু মিয়া বলেন, জাহানারাকে হত্যার ঘটনায় তার স্বামী ইমনকে আটক করার চেষ্টা চলছে। হত্যার তথ্য উদঘাটনের জন্য জাহানারা শশুড় শাশুড়ীকে আটক করে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। নিহতের পরিবারের পক্ষথেকে এখনো থানায় মামলা দায়ের হয়নি বলে জানান তিনি। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য সিওমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.