মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
সড়ক সংস্কার বিষয়ে যা বললেন ইউএনও-সিএন্ডবি কর্মকর্তারা  » «   জকিগঞ্জ-বটরতল সড়ক সংস্কার কাজ শুরু না হওয়ায় তীব্র ক্ষোভ  » «   বারঠাকুরী ও কসকনকপুর ইউপি ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক প্রাথীদের জীবন বৃত্তান্ত আহ্বান  » «   উত্তরকুল মোশাহিদীয়া দাখিল মাদ্রাসা তালামীযের কমিটি গঠন  » «   তালামীযের জকিগঞ্জ পৌরসভা শাখার কমিটি গঠন  » «   গঙ্গাজল (ক) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড ডে মিল চালু  » «   বারঠাকুরী ইউপি সদস্য সুনাম আহমদের দাফন; এলাকায় শােকের ছায়া  » «   ফেসবুক জুড়ে ইকবাল তালুকদারের মৃত্যুর স্ট্যাটাস  » «   ইকবাল তালুকদারের ইন্তেকাল; জকিগঞ্জে শােকের ছায়া  » «   ঢাকায় মি’রাজুন্নবী সা. উপলক্ষ্যে আলোচনা ও মিলাদ মাহফিল  » «  

কাতার ঘিরে অস্থির মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী বাংলাদেশিদের স্বার্থ সুরক্ষিত থাকুক

সন্ত্রাসবাদীদের মদদ দেওয়ার অভিযোগ এনে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে সৌদি আরব, মিসরসহ ছয় দেশ। এই বিরোধ দ্রুত নিরসন না হলে মধ্যপ্রাচ্যের চলমান সমস্যা আরো ঘনীভূত হবে, বিপত্তিতে পড়তে পারে বাংলাদেশসহ আরো অনেক দেশ।

সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো প্রতি বৈরিতা নয়’—বাংলাদেশের এই পররাষ্ট্রনীতি জটিলতার মুখে পড়তে পারে এই বিরোধে। সৌদি আরব ও কাতার এই দুটি দেশেই বহু বাংলাদেশি শ্রমিক রয়েছে, যাদের পাঠানো অর্থ দেশের অর্থনীতির গতিশীলতার ক্ষেত্রে অনেক ভূমিকা রাখে। বর্তমানে কাতারে প্রায় তিন লাখ ২৫ হাজার বাংলাদেশি অবস্থান করছেন। বিশ্বকাপ আয়োজন ঘিরে কাতারে বাংলাদেশের শ্রমবাজার কিছুদিন ধরে বড় হচ্ছিল। বিরোধের কারণে এই সম্ভাবনাও নষ্ট হয়ে যেতে পারে। মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশের বৃহত্তম শ্রমবাজার সৌদি আরব। বাহরাইন ও আমিরাতেও লাখ লাখ বাংলাদেশি কর্মী রয়েছেন। কাতারে কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা এর মধ্যেই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। বন্ধুত্বপূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক রক্ষা করে মধ্যপ্রাচ্যের বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার চেষ্টা থাকতে হবে আমাদের।

গত বছর সৌদি আরবের নেতৃত্বে যে সামরিক জোট গড়ে ওঠে, বাংলাদেশ তার অংশীদার হয়েছে। ইয়েমেনে ইরানের মদদপুষ্ট হুতি বিদ্রোহীদের ওপর সৌদি আরবের হামলায়ও ঢাকার সমর্থন ছিল। অন্যদিকে মধ্যপ্রাচ্যে অনেকটাই কোণঠাসা ইরান বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহের কথা নানা সময়ই প্রকাশ করেছে।   হজ নিয়ে গত বছর সৌদি আরব ও ইরানের দ্বন্দ্বের সময় বাংলাদেশ নীরবই থেকেছে। এজাতীয় টানাপড়েনে ঢাকা সতর্ক অবস্থানে থাকলেও তেহরানের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি কখনো হয়নি। কাতারের সমস্যাটি দীর্ঘস্থায়ী হলে সৌদি সামরিক জোট সদস্যদের সহায়তা চাইতে পারে। তখন  কূটনৈতিক সংঘাতের মধ্যে পড়তে হতে পারে বাংলাদেশকে। আমাদের কূটনৈতিক মহলকে এসব বিষয়ে আগেভাগেই সতর্ক থাকতে হবে। লাখ লাখ শ্রমিক ও জাতীয় অর্থনীতিতে তাঁদের অবদানের ওপর সম্ভাব্য ঝুঁকি হ্রাসের সব চেষ্টা চালাতে হবে।

বিরোধ স্থায়ী হলে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বৈশ্বিক অর্থনীতিসহ সন্ত্রাসবাদবিরোধী লড়াইয়ে। এর মধ্যেই তেলের বাজার কিছুটা অস্থির হয়ে উঠেছে। আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, মুসলিম ব্রাদারহুডকে সমর্থনদানসহ যেসব বিষয়কে কেন্দ্র করে সমস্যা এ জায়গায় এসেছে কাতারের উচিত হবে সেগুলোর নীতি পুনর্মূল্যায়ন করা। প্রতিপক্ষ মহলকেও বুঝতে হবে উপসাগরে কাতার অর্থনীতির শক্তিশালী ভরকেন্দ্র; দেশটিতে রয়েছে মার্কিন মিলিটারির কেন্দ্রীয় কমান্ডের সদর দপ্তর। ইরাক ও সিরিয়ায় আইএস লক্ষ্যবস্তুতে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের বিমানের কমান্ডও পরিচালিত হয় কাতার থেকে। তাই বিরোধ মীমাংসায়ই রয়েছে সবার জন্য কল্যাণ।

আপনার মতামত প্রদান করুন

টি মন্তব্য

Insurance Loans Mortgage

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.